সংসদ নির্বাচন: প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন করে আমরা কলঙ্কিত হতে চাই না - বলছেন ইসি কমিশনার মাহবুব তালুকদার

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। ছবির কপিরাইট নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট
Image caption পুরোনো একটি ছবিতে নির্বাচন কমিশনের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

বাংলাদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও ভোটারদের যার যার দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।

আজ দুপুরে ঢাকার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বিবৃতিতে তিনি এই আহ্বান জানান।

এছাড়া নির্বাচনে প্রচারণা চলাকালে দেশে একের পর এক সহিংসতার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, "নির্বাচন ও সন্ত্রাস একসঙ্গে চলতে পারে না।"

এবারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সব পর্যায়ে গ্রহণযোগ্য ও বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে না পারলে জাতির আত্মমর্যাদা ক্ষুণ্ণ হবে বলে তিনি মনে করছেন।

তিনি বলেন, "নির্বাচন শুধুমাত্র অংশগ্রহণমূলক হলেই হয়না, তার পাশাপাশি অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও আইনানুগ হতে হয়।"

তার মতে, নির্বাচনের জন্য সুষ্ঠু ও নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করতে না পারলে সেটা শুধুমাত্র নির্বাচন কমিশনের পরাজয় হবে না বরং দেশের মানুষের পরাজয় হবে।

তার ভাষায়, "নির্বাচন কমিশন প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন করে কলঙ্কিত হতে চায়না। নির্বাচনে যিনিই আসুন না কেন, যারাই আসুন, দেশের মানুষ যেন পরাজিত না হয়।"

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়ে যা বললেন

এক লিখিত বক্তব্যে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নির্বাচনের সহায়ক শক্তি হিসেবে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, তারা যেন সবার সাথে সম-আচরণ করেন এবং নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করে।

এসময় তিনি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে পক্ষপাতমূলক বা অনভিপ্রেত আচরণ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption নির্বাচন কমিশন

সেই সঙ্গে রিটার্নিং কর্মকর্তাসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তাদের "আবেগের বশবর্তী না হয়ে সাহসিকতার সঙ্গে আইনানুযায়ী দায়িত্ব" পালন করতে বলেন।

সবশেষে ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, "নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে আসুন। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিন।"

এসময় কারো ভয়-ভীতি বা প্রলোভনের কাছে নতি স্বীকার না করার আহ্বানও জানান তিনি।

এবারের নির্বাচনকে বাংলাদেশের আত্মসম্মান সমুন্নত রাখার নির্বাচন হিসেবে উল্লেখ করে তিনি তার বিবৃতি শেষ করেন।