সংসদে শেখ হাসিনা - সমালোচনায় বাধা সৃষ্টি করবো না

শেখ হাসিনা ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হলেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সংসদে বিরোধী দল যাতে সমালোচনা করতে পারে সেজন্য সরকারি দল বাধা সৃষ্টি করবে না।

একাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশনে দেয়া সংক্ষিপ্ত ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এবং সংসদ নেতা শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, " বিরোধী দলের নেতা এবং বিরোধী দলের সকলকে আমি এটুকু বলতে চাই যে গণতান্ত্রিক ধারায় সমালোচনা সবসময় গুরুত্বপূর্ণ। আমি এটুকু আশ্বাস দিতে পারি যে এই সমালোচনা আমাদের বিরোধী দলে যারা আছেন তারা যথাযথভাবে করতে পারবেন। এখানে আমরা কোন বাধা সৃষ্টি করবো না।"

দশম সংসদের প্রতি ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এর পূর্বে যখন সংসদ চলেছে একটা চমৎকার পরিবেশের মধ্য দিয়ে সংসদ পরিচালিত হয়েছিল বলেই মানুষের আস্থা-বিশ্বাস অর্জন করা সম্ভব হয়েছিল।

"আবার যেহেতু আমরা সংসদে নির্বাচিত হয়ে এসেছি অবশ্যই জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা পূরণ করে বাংলাদেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাব।"

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশে যাতে একটি শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করে তাঁর সরকার সেজন্য কাজ করবে।

নির্বাচনে ২৫৮টি আসনে জয়লাভ করেছে আওয়ামী লীগ, অন্যদিকে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নামের বিরোধী জোট আটটি আসনে জয়ী হলেও তারা ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে নতুন নির্বাচন দাবি করেছে।

সংসদে বিরোধী দল হিসেবে বসছে ২২টি আসনে জয়ী হওয়া জাতীয় পার্টি যারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত মহাজোটেরই একটি শরিক দল।

এছাড়া আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরীক দল ওয়ার্কার্স পার্টি এবং জাসদও সংসদের বিরোধী দলের ভূমিকা নেবে - এমনটাই বলা হচ্ছে।

ফলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শরীকদেরই বিরোধী দলে দেখা যাবে। তারা কতটা স্বাধীনভাবে সরকারকে চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন, সেটা নিয়ে সন্দেহ থেকে যায়।

এদিকে সংসদ অধিবেশনের প্রথম দিনে বিএনপি ঢাকায় মানব বন্ধনের কর্মসূচী পালন করেছে।

দলটির নেতারা বলছেন, তাদের ভাষায় 'কারচুপি' এবং 'অনিয়মের' নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ এই সংসদ গঠন করেছে। ফলে তারা সংসদের প্রথম দিনেই প্রতিবাদ করেছেন।

আরো পড়ুন:

যেমন হতে যাচ্ছে এবারের জাতীয় সংসদ

সংরক্ষিত আসনের সাংসদের কাজ কী?

বাংলাদেশে সংসদ সদস্য হলে কী সুবিধা পাওয়া যায়?

যেভাবে বিবিসির চোখে পড়লো ভোটের আগেই পূর্ণ ব্যালটবক্স