বিপিএল ২০১৯: সেরা চার নিয়ে শঙ্কায় সাকিবের ঢাকা, সমীকরণ কী বলছে?

ক্রিকেট, বিপিএল, বাংলাদেশ ছবির কপিরাইট BCB
Image caption মাশরাফির রংপুর রাইডার্স আছে এক নম্বরে, সাকিবের ঢাকা এখনো অনিশ্চিত সেরা চার নিয়ে

ঢাকা ডায়নামাইটস, টানা চারটি জয় দিয়ে ২০১৯ সালের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ শুরু করা দলটি এখন সেরা চারের বাইরে।

সেরা চারে জায়গা করে নিতে এখনো কিছু সমীকরণ মেলাতে হবে সাকিব আল হাসানের দলকে।

ঢাকা ডায়নামাইটস প্রথম হারের মুখ দেখে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে সেই রাজশাহী কিংস আছে এখন চার নম্বরে।

পয়েন্ট তালিকা বলছে রাজশাহীর পয়েন্ট এখন ১২ ম্যাচে ১২।

তবে ঢাকার জন্য আশার কথা এখনো দুটি ম্যাচ বাকি রয়েছে।

নেট রান রেটের হিসেবে ঢাকা সবার চেয়ে এগিয়ে।

তাই সমীকরণ বলছে এই দুটি ম্যাচের যেকোনো একটিতে জয় পেলেই সেরা চারে জায়গা পাবে ঢাকা ডায়নামাইটস।

আরো পড়ুন:

শুরুতেই কেন বিতর্কে পড়লো এবারের বিপিএল

ইমরুল কায়েসের আক্ষেপ ও নিবার্চকদের ব্যাখ্যা

আইসিসি বর্ষসেরা কোহলি,ওয়ানডে দলে মুস্তাফিজ

ছবির কপিরাইট বিবিসি বাংলা
Image caption বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ পয়েন্ট টেবিল

সবগুলো দলের মধ্যে একমাত্র রাজশাহী কিংস নির্ধারিত ১২ ম্যাচ খেলে ফেলেছে।

তাই তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে ঢাকার বাকি দুই ম্যাচের দিকে।

সেই দুই ম্যাচে ঢাকা পরাজিত হলেই কেবল সেরা চারে জায়গা পাবে মিরাজ-মুস্তাফিজের রাজশাহী কিংস।

জায়গা নিশ্চিত কাদের?

রংপুর রাইডার্স, যারা ১১টি ম্যাচ খেলে ১৪ পয়েন্ট পেয়েছে।

ক্রিস গেইল এখনো আশানুরুপ না খেলতে পারলেও, মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা, এবি ডি ভিলিয়ার্স, রাইলি রুশো, অ্যালেক্স হেইলসরা রংপুরকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, শুরুতে স্টিভ স্মিথ অধিনায়ক থাকলেও, পরে ইমরুল কায়েসের অধিনায়কত্বে আগায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, যেখানে শহীদ আফ্রিদি ও থিসারা পেরেরা ভূমিকা রাখেন।

১০ ম্যাচ খেলে ১৪ পয়েন্ট কুমিল্লার।

চিটাগং ভাইকিংস, মুশফিকুর রহিমের দল চিটাগং এখন পর্যন্ত রবি ফ্রাইলিংক, মুশফিকুর রহিম, ইয়াসির আলীর ওপর ভর করে তিন নম্বরে আছে।

১১ ম্যাচে চিটাগংয়ের পয়েন্ট ১৪।

শেষ রাউন্ডের আগের পথ কেমন ছিল?

ছবির কপিরাইট BCB
Image caption মিরাজ ও মুস্তাফিজ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে রাজশাহী কিংসকে

রাজশাহী কিংস শুরুতেই চমক দেয় মেহেদী হাসান মিরাজকে অধিনায়ক ঘোষণা করে।

মুস্তাফিজুর রহমান, লরি ইভান্সদের পাশাপাশি এই দলে রায়ান টেন ডেসকাটের পারফরম্যান্স উল্লেখযোগ্য।

উত্থান-পতনের মধ্য দিয়েই এগিয়ে যায় রাজশাহী।

প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের সাথে হারার পর খুলনা টাইটান্সের সাথে জয় পায় রাজশাহী, তবে আবার হেরে যায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে।

ছবির কপিরাইট BCB
Image caption রংপুর রাইডার্স বর্তমান চ্যাম্পিয়ন, পয়েন্ট তালিকাতেও আছে এক নম্বরে

এরপর রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে শেষ ওভারের উত্তেজনায় রাজশাহীকে জেতান মুস্তাফিজুর রহমান।

খুলনা টাইটান্স, যারা পুরো আসরে মাত্র দুটি জয় পেয়েছে। তার মধ্যে একটি রাজশাহীর বিপক্ষে। তবে রাজশাহী উজ্জীবিত হয় ঢাকা ডায়নাইটসকে ২০ রানে হারিয়ে।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচে রাজশাহী জয় পেলেও, চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে হেরে যায় মিরাজের দল।

এরপর সিলেট, চিটাগং, রংপুরের বিপক্ষে টানা তিন ম্যাচ হারে রাজশাহী কিংস। শেষ পর্যন্ত চট্টগ্রামের মাটিতে শেষ ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সকে হারিয়ে সেরা চারে আপাত জায়গা করে নেয় কিংস।

আর ঢাকা পুরো আসরে মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ দেখেছে।

প্রথমে শুরু হয় টানা চারটি জয় দিয়ে ঢাকা ডায়নামাইটসের।

এরপর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে একটি হার ও সিলেট সিক্সার্সের বিপক্ষে একটি জয় পায় ঢাকা।

শেষ চারটি ম্যাচে হারের মুখ দেখে সাকিব আল হাসানের দল।

বিবিসি বাংলা'র অন্যান্য খবর:

মিজোরামে কেন 'বিদায় ভারত, স্বাগত চীন' স্লোগান?

‘ক্লাসরুমে ফিরে যান’- গোয়েন্দা প্রধানদের ট্রাম্প

ভেনেজুয়েলা সংকট কোনদিকে মোড় নিচ্ছে?

সম্পর্কিত বিষয়