ফ্রান্সে ৩,০০০ মুরগীর আক্রমণে মারা গেল শিয়াল শাবক

মুরগীর খামার ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption কয়েক হাজার মুরগীর আক্রমণে একটি শিয়াল মারা গিয়েছে। (ফাইল ফটো)

ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি স্কুলের খামারে কিছু মুরগী মিলে একটি ছোট শিয়ালকে মেরে ফেলেছে।

দেশটির ব্রিটানিতে একটি মুরগীর খাঁচায় শিয়ালটি ঢুকে পড়লে দরজা তৎক্ষণাৎ বন্ধ হয়ে যায়। আর তারপরেই ঘটে এই অস্বাভাবিক ঘটনাটি।

ঐ খাঁচায় ৩,০০০ মুরগী ছিল বলে জানা যাচ্ছে।

"এটা এদের সহজাত প্রবৃত্তি। তারা ঠোঁট দিয়ে তাকে (শিয়ালটিকে)আক্রমণ করে", বলেছেন কৃষি বিষয়ক স্কুল গ্রস-চেনের ফার্মিং-এর প্রধান প্যাসকেল ড্যানিয়েল।

পরের দিনে খামারের এক কোণে শিয়ালটির লাশ পাওয়া যায়।

"এটার ঘাড়ে মুরগীর ঠোকরানোর চিহ্ন ছিল," সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন মি. ড্যানিয়েল।

পাঁচ একর জমির উপর করা এই খামারে প্রায় ৬,০০০ মুরগীকে প্রাকৃতিক পরিবেশে পালন করা হয়।

এএফপি জানাচ্ছে, দিনের বেলায় খাঁচার দরজা খুলে রাখা হয় যাতে মুরগীগুলো বাইরে ঘুরে-ফিরে বেড়াতে পারে।

ধারণা করা হচ্ছে, সেসময়ই শিয়াল শাবকটি মুরগীর খাঁচায় ঢুকে পড়ে।

এরপর যখন স্বয়ংক্রিয় খাঁচাটি বন্ধ হয়ে যায়, তখন পাঁচ-ছয় মাস বয়সের এই বাচ্চা শিয়ালটি ভেতরে আটকা পড়ে।

"সম্ভবত এতোগুলো মুরগীর আক্রমণে শিয়ালটি ভয় পেয়ে গিয়েছিল", ফরাসী স্থানীয় সংবাদপত্র অয়েস্ট ফ্রান্সকে বলেন মি. ড্যানিয়েল।

"তারা (মুরগীগুলো) দলবদ্ধ অবস্থায় খুবই নাছোড়বান্দা হয়ে উঠতে পারে", তিনি জানান।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

মুরগীর ডিমে তা দিচ্ছেন ফরাসী শিল্পী

'মুরগির দুনিয়া': কীভাবে পৃথিবীর দখল নিলো এই পাখি

দেশি ও বিদেশী মুরগী চিনুন

সম্পর্কিত বিষয়