বনানীর ভবনে আগুন: সকাল থেকে আবার শুরু হয়েছে উদ্ধারকাজ

ভবনটিতে অগ্নিনিরাপত্তা কতটা মানা হয়েছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ভবনটিতে অগ্নিনিরাপত্তা কতটা মানা হয়েছিল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

বনানীতে বহুতল ভবন এফ আর টাওয়ারে বৃহস্পতিবার আগুন লেগে এখন পর্যন্ত অন্তত ১৯ জন নিহত এবং ৭৬ জন আহত হয়েছেন বলে বিবিসি বাংলাকে নিশ্চিত করেছেন দমকল বাহিনীর সিনিয়র স্টেশন অফিসার খুরশীদ আনোয়ার।

মি. আনোয়ার জানান, "আগুন রাতে নিয়ন্ত্রণে আনার পর উদ্ধারকাজ বন্ধ রাখা হয়, তবে আবার যেন আগুন ছড়িয়ে পরতে না পারে তা নিশ্চিত করতে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট সারারাতই ঘটনাস্থলে ছিল।"

সকাল থেকে আবারো উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে।

তবে উদ্ধার অভিযান শেষ হতে কত সময় লাগতে পারে সে বিষয়ে কোনো ধারণা দিতে পারেননি মি. আনোয়ার।

ভেতরে এখনো মৃতদেহ পাওয়া যাওয়ার সম্ভাবনাও সম্পূর্ণ নাকচ করে দেননি মি. আনোয়ার।

আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কেন এত সময় লাগলো - সে প্রশ্নের উত্তরে মি আনোয়ার বলেন, "একটি বহুতল ভবনের জন্য যেরকম অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা থাকার কথা, সেরকম আমরা দেখতে পাইনি।"

এছাড়া বহুতল ভবনে আগুন নেভানোর জন্য যেসব গাড়ি প্রয়োজন সেগুলো দূর থেকে নিয়ে আসার কারণে এবং রাস্তায় যানজট থাকার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে দেরী হয় বলে জানান মি. আনোয়ার।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption বৃহস্পতিবার বনানীতে আগুন নিয়ন্ত্রণ দমকল বাহিনীকে অনেক বেগ পেতে হয়।

আগুন লাগার চার ঘণ্টার বেশি সময় পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

পরে এ কাজে দমকল বাহিনীর ১৭টি ইউনিট কাজ করে। সেই সঙ্গে যোগ দেয় অন্যান্য বাহিনীও।

পরে তাদের সাথে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী যৌথভাবে কাজ শুরু করে। সাথে স্থানীয় মানুষেরাও যোগ দেন।

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না
ঘটনাস্থল থেকে বিবিসি বাংলার কাদির কল্লোল

সম্পর্কিত বিষয়