ইলিয়াস হুসেইন ও আব্দুল্লাহ আল মোরশেদ - ফোর্বসের তালিকায় ঠাঁই পাওয়া দুই বাংলাদেশী তরুণ কারা

ইলিয়াস হুসেইন (বামে) এবং আব্দুল্লাহ আল মোরশেদ ছবির কপিরাইট ফোর্বস ম্যাগাজিন

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাগাজিন ফোর্বস এ বছরের অনূর্ধ্ব-৩০ ক্যাটাগরিতে এশিয়া অঞ্চলের তরুণ উদ্যোক্তাদের যে তালিকা করেছে তাতে স্থান পেয়েছেন দু জন বাংলাদেশী।

এরা হলেন রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান পাঠাওয়ের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন ইলিয়াস হুসেইন ও কার্টুনিস্ট আব্দুল্লাহ আল মোরশেদ।

ফোর্বসের ওয়েবসাইটে দেয়া তথ্য অনুযায়ী, হুসেইন ইলিয়াস ও সিফাত আদনান পাঠাও প্রতিষ্ঠা করেন। এর মধ্যে ইলিয়াসের বয়স মাত্র ২৯ বছর। বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান পাঠাও যানবাহন ছাড়াও ফুড ডেলিভারি প্রতিষ্ঠান হিসেবেও কাজ করছে।

রাইড শেয়ারিং পাঠাও অ্যাপসের মাধ্যমে মটর সাইকেল ও গাড়ী ব্যবহার করছে বাংলাদেশের পাঁচটি শহরে ও নেপালের কাঠমান্ডুতে প্রায় পঞ্চাশ লাখ মানুষ।

প্রতিষ্ঠানটিতে বিদেশী বিনিয়োগ আছে এবং পাঠাও চার দফায় ১২ মিলিয়ন ডলার তহবিল সংগ্রহে সক্ষম হয়েছে।

প্রতিষ্ঠান এর আর্থিক মূল্য এখন একশ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি।

জি-বাংলাসহ কয়েকটি ভারতীয় চ্যানেল দেখা যাচ্ছে না

অর্ধেক ব্যাংক সাইবার হামলার ঝুঁকিতে, বিপর্যয়ের শঙ্কা

ডাক্তার 'মুখে বলতে পারেননি ছেলে অটিজমে আক্রান্ত'

ছবির কপিরাইট ফোর্বস ম্যাগাজিন
Image caption ইলিয়াস হুসেইন, পাঠাওয়ের সহ প্রতিষ্ঠাতা

অন্যদিকে আব্দুল্লাহ আল মোরশেদ (ফোর্বস ওয়েবসাইটে মোরশেদ আব্দুল্লাহ আল) একজন কার্টুনিস্ট।

২০১৮ সালের শুরু থেকে তিনি যুদ্ধের হৃদয় বিদারক ও ভয়ংকর দৃশ্যের ছবিগুলোতে মনোমুগ্ধকর শিল্পকর্মে রূপান্তর শুরু করেন।

তার উদ্দেশ্য ছিলো কিভাবে সহিংসতা বা যুদ্ধ ছাড়া বিশ্বকে কতটা সুন্দর দেখায় সেটি তুলে ধরা।

ছবির কপিরাইট ফোর্বস ম্যাগাজিন
Image caption কার্টুনিস্ট আব্দুল্লাহ আল মোরশেদ

তার কাজ ছড়িয়ে পড়ার পর তিনি গ্লোবাল হ্যাপিনেস অ্যাওয়ার্ড পান এবং বাংলাদেশের গণমাধ্যমে তার কার্টুন প্রকাশিত হতে শুরু করে।

মোরশেদ মিশু'স ইলাসট্রেশন-এর প্রতিষ্ঠাতা মিস্টার মোরশেদ এ মূহুর্তে তিনি কার্টুন ম্যাগাজিন উন্মাদের অ্যাসিস্ট্যান্ট এডিটর।