সিরিয়ায় হামলার মধ্য দিয়ে ফিরে আসছে আইএস?

ইরাকের মসুল শহরের আল-নাজ্জার এলাকায় ২০১৬ সালে আইএস-এর সাথে লড়াইয়ের ছবি। ছবির কপিরাইট AHMAD AL-RUBAYE
Image caption ইরাকের মসুল শহরের আল-নাজ্জার এলাকায় ২০১৬ সালে আইএস-এর সাথে লড়াইয়ের ছবি।

সিরিয়া থেকে পাওয়া খবরে বলা হয়েছে, তথাকথিত ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী গত মাসে তাদের খিলাফতের পতনের পর এই প্রথম বড় ধরনের হামলা চালিয়েছে।

বিবিসির মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সম্পাদক সেবাস্টিায়ান আশার জানাচ্ছেন, সিরিয়ার কেন্দ্রস্থলে আইএস যোদ্ধারা গত দু'দিনে বেশ কয়েকবার হামলা চালিয়েছে।

ঐ এলাকার মরুভূমিতে দুর্গম এলাকায় আইএস যোদ্ধারা এখন লুকিয়ে রয়েছে।

সিরিয়ান মানবাধিকার কর্মীরা জানাচ্ছেন, হামলায় ৩৫ জন সৈন্য এবং তাদের সহযোগী নিহত হয়েছে।

তবে হতাহতের সংখ্যার ব্যাপারে সিরিয়ার সরকারির বাহিনীর তরফ থেকে কোন বক্তব্য জানা যায়নি।

হামলার সবচেয়ে বড় ঘটনাটি ঘটেছে সিরিয়ার পালমাইরা শহরের উত্তরে।

দু'বছর আগে আইএস এই শহরটি দখল করে সেখানকার একটি প্রাচীন মন্দির ধ্বংস করে দিয়েছিল।

আইএস ঐ অঞ্চলে তাদের খিলাফত প্রতিষ্ঠার আগে গেরিলা লড়াই চালিয়েছিল।

সংবাদদাতারা বলছেন, এখন খিলাফত ধ্বংস হওয়ার পর আইএস ইরাক এবং সিরিয়ায় আবার গেরিলা যুদ্ধের কৌশল হাতে নিতে পারে, এমন আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ছবির কপিরাইট Valery Sharifulin
Image caption প্রাচীন শহর পালমাইরার ধ্বংসাবশেষ।

আরো পড়তে পারেন:

যৌন হেনস্তা: অভিযুক্ত স্বয়ং প্রধান বিচারপতি

'আমাদের সঙ্গে দাসীর মতো ব্যবহার করা হতো'

'ধর্ম অবমাননা', তোপের মুখে অস্ট্রিয়া প্রবাসী ব্লগার