প্রাচীন নিদর্শন ঘুরে দেখা যাবে দূর থেকেই?

একবার ভাবুনতো হাজার বছরের পুরনো কোন নগরী, মসজিদ বা মন্দির, আপনি ঘুরে দেখছেন- কেমন লাগবে? অদ্ভুত লাগলেও প্রযুক্তির সাহায্যে এটা সম্ভব।

প্রাচীন ও ঐতিহাসিক স্থাপনা বা নিদর্শন যেন ডিজিটালি সংরক্ষণ করা যায় সেজন্য বিশ্বজুড়ে কাজ হচ্ছে।

এই যেমন ভারতের হাম্পির ভার্চুয়াল মডেল নির্মাণ করেছেন ইতিহাসবিদেরা। ১৫৬৫ সালে ধ্বংস হয়ে যাওয়া এই শহরটির থ্রিডি স্ক্যান করেছে অনেকগুলো সংগঠন।

মিয়ানমারের হাজার বছরের পুরনো স্থাপনা বাগানেরও থ্রিডি স্ক্যান করা হয়েছে। যেগুলো ভার্চুয়াল সেট-আপের মধ্যে আনার চেষ্টা চলছে।

থাইল্যান্ডেও প্রাচীন নগরী আইয়ুথাইয়াতে ৪০০ বছর আগের রূপ দেখতে পাচ্ছেন পর্যটকেরা, যা সম্ভব হয়েছে ভিআর অ্যাপের মাধ্যমে।

বাংলাদেশও কিন্তু পিছিয়ে নেই।

প্রাচীন স্থাপনা ষাটগম্বুজ মসজিদকে ভার্চুয়াল রিয়েলিটিতে আনতে কাজ করেছেন আহমেদ জামান।

প্রত্নতত্ববিদদের সাহায্যে বাংলাদেশের প্রাচীন এই মসজিদটি পুরনো আমলে কেমন ছিল তার ভার্চুয়াল মডেল নির্মাণ করা হয়েছে।

এখন এই মসজিদটির ভেতর আপনি হাঁটতে পারবেন, আশেপাশের রাস্তা ও পরিবেশও আপনি দেখতে পাবেন। যার জন্য আপনার দরকার হবে ভিআর হেডসেট ও একটি রিমোট যেটা দিয়ে আপনি যেখানে যেতে চান সেই জায়গা সিলেক্ট করে চলে যেতে পারবেন। এবং আপনার সিলেকশান অনুযায়ী ওই মডেলের কোন জায়গায় আপনি আছেন তাও দেখতে পাবেন।

বাংলাদেশে যেসব ঐতিহাসিক স্থাপনা আছে সেগুলো ভার্চুয়াল রিয়েলিটি সেট-আপের মধ্যে আনতে কাজ করছেন ভিআর ফিল্মমেকার আহমেদ জামান।

ভাচুয়াল রিয়েলিটি সেট-আপের মধ্যে যদি এগুলো আনা যায় তাহলে হয়তো সময়ের সাথে এসব নিদর্শন হারিয়ে যাবে না। প্রযুক্তির সাহায্যেই এসব নিদর্শন ঘুরে দেখা যাবে।

বিবিসি ক্লিকের প্রতিবেদনে বিস্তারিত।

বিবিসি বাংলার আরো খবর: