শ্রীলংকায় সন্ত্রাসী বোমা হামলার মূল হোতা জাহরান হাশিম নিহত?

জাহরান হাশিম: অমুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতার ডাক দিয়েছিলেন ইউটিউব ভিডিওতে ছবির কপিরাইট .
Image caption জাহরান হাশিম: অমুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতার ডাক দিয়েছিলেন ইউটিউব ভিডিওতে

শ্রীলংকায় ইস্টার সানডের সন্ত্রাসী বোমা হামলার প্রধান হোতা বলে সন্দেহ করা হচ্ছে যাকে, সেই জাহরান হাশিম নিজেও সেদিন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা।

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা বলেছেন, কলম্বোর শাংরি-লা হোটেলের হামলায় জাহরান হাশিম নিহত হন। সেদিন ঐ হোটেলে তিনিই হামলার নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। তার সঙ্গে ছিলেন ইলহাম নামে দ্বিতীয় একজন আত্মঘাতী হামলাকারী।

গত রোববার বিভিন্ন গির্জা এবং হোটেলকে টার্গেট করে চালানো এই হামলায় নিহতের সংখ্যা এখন ২৫৩ জন বলে জানাচ্ছে শ্রীলংকার কর্তৃপক্ষ।

১৩০ জন আইএস জঙ্গী

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা আরও বলেন, শ্রীলংকার নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থাগুলো মনে করে, ইসলামিক স্টেটের ১৩০ জনের মতো জঙ্গী শ্রীলংকায় আছে। এদের মধ্যে ৭০ জনকে হন্যে হয়ে খুঁজছে শ্রীলংকার পুলিশ।

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা স্পষ্ট করে বলেননি জাহরান হাশিম শাংরি-লা হোটেলের হামলায় ঠিক কী ভূমিকা পালন করেন।

এই হামলার জন্য শ্রীলংকার কর্তৃপক্ষ স্থানীয় একটি জঙ্গী গোষ্ঠী 'ন্যাশনাল তাওহীদ জামাত'কে দায়ী করছে।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption শ্রীলংকার উপকুলীয় শহর কাত্তানকুডিতে 'ন্যাশনাল তাওহীদ জামাত' পরিচালিত একটি মসজিদ। এই শহরেই বড় হয়েছেন জাহরান হাশিম।

কে এই জাহরান হাশিম

জাহরান হাশিম শ্রীলংকার একজন কট্টরপন্থী জঙ্গী মুসলিম নেতা। তার অতটা পরিচিতি আগে ছিল না। তবে শ্রীলংকায় বেশ কিছু বুদ্ধ মূর্তির মুখ বিকৃত করার ঘটনায় তার কুখ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে। এর পর ইউটিউবে তার ফলোয়ারের সংখ্যা বাড়তে থাকে।

কোন কোন ভিডিওতে জাহরান হাশিম অমুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংস হামলার ডাক দেন।

আরও পড়ুন:

শ্রীলঙ্কা হামলা: মুসলিম সংখ্যালঘুদের অবস্থা কেমন?

শ্রীলংকা হামলা: নিহতের সংখ্যা সরকার এখন বলছে '১০০ কম'

হামলার অভিযুক্ত মূল হোতাকে নিয়ে উদ্বেগ ছিল মুসলিমদের

ইস্টার সানডের সন্ত্রাসী হামলার পর ইসলামিক স্টেট তার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। এই ভিডিওতে জাহরান হাশিমকে এমন সাতজনের সঙ্গে দেখা যাচ্ছে, যাদের অনেকেই সেদিনের আত্মঘাতী হামলাকারী বলে মনে করা হচ্ছে।

ভিডিওতে তাদের ইসলামিক স্টেটের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করতে দেখা যায়। তবে ভিডিওতে একমাত্র জাহরান হাশিম ছাড়া অন্যদের মুখ ঢাকা ছিল।

শ্রীলংকার উপকুলীয় শহর কাত্তানকুডি থেকে এসেছেন জাহরান হাশিম। তার বোন এখনো সেখানে থাকেন। ভাইয়ের সঙ্গে তার সর্বশেষ যোগাযোগ হয়েছিল দু'বছর আগে।

বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, তার ভাই যা করেছে, তাতে তিনি স্তম্ভিত।

"ও যদিও আমার ভাই, আমি কিছুতেই এটা মেনে নিতে পারছি না। ও আর আমার কেউ নয়", বলছেন তিনি।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption নেগোম্বো শহরের সেন্ট সেবাস্টিয়ান চার্চে হামলা চালাতে যাচ্ছে এক আত্মঘাতী হামলাকারী। সিসিটিভি-তে রেকর্ড করা ছবি।

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, পুলিশ এখনো বেশ কিছু সন্দেহভাজন আইএস জঙ্গীকে খুঁজছে।

কিন্তু এটা পরিস্কার নয় যে এই হামলার সঙ্গে আরও যারা জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তাদের সবাইকে ধরা গেছে না তারা দেশ ছেড়ে পালিয়েছিল।

নিহতের সংখ্যা

প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা আরও জানিয়েছেন, পুলিশ বাহিনীর প্রধান পুজিথ জয়াসুন্দারা এই ঘটনায় পদত্যাগ করেছেন। এর আগে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তা হেমাসিরি ফার্নান্দোও পদত্যাগ করেন।

হামলায় প্রথম নিহতের সংখ্যা সাড়ে তিনশোর বেশি বলে বলা হয়েছিল। কিন্তু গতকাল শ্রীলংকার কর্তৃপক্ষ এটি সংশোধন করে এখন বলছেন, নিহতের সংখ্যা ২৫৩ জন।

তারা বলছেন, বোমা হামলার পর অনেক দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছিল, সেজন্যে নিহতের সংখ্যা নিয়ে এই ভুল হয়েছে।