উত্তর কোরিয়ার অস্ত্রকে 'ছোট' বললেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption ডেনাল্ড ট্রাম্প এবং কিম জন আন-এর মধ্যকার দ্বিতীয় বৈঠক কোন সমঝোতা ছাড়াই শেষ হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার মিসাইল টেস্ট গুরুত্বকে খাটো করে দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, এগুলো 'ছোট অস্ত্র'।

রবিবার রাষ্ট্রীয় সফরে জাপান পৌঁছানোর পর মি: ট্রাম্প টুইটার বার্তায় একথা উল্লেখ করেছেন।

রবিবার জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একসাথে সকালের নাশতা শেষ করে টোকিওর বাইরে গলফ কোর্সে যান।

মি: ট্রাম্প বলেছেন, দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ভারসাম্য রক্ষার জন্য তিনি জাপানের সাথে একটি বাণিজ্য চুক্তি করতে চান।

মি: ট্রাম্প লিখেছেন, " উত্তর কোরিয়া কিছু ছোট অস্ত্র ছুঁড়েছে। এ বিষয়টি আমার কিছু লোককে বিরক্ত করেছে। কিন্তু এতে আমার কিছু হয়নি। চেয়ারম্যান কিম-এর উপর আমার আস্থা আছে যে তিনি তাঁর প্রতিশ্রুতি রাখবেন।"

উত্তর কোরিয়ার অস্ত্র সংক্রান্ত বিষয়ে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প-এর বক্তব্য পুরোপুরি উল্টো।

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সাথে গলফ খেলেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মি: বোল্টন বলেন, ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া জাতিসংঘ সনদের লঙ্ঘন করেছে।

গত বছর সিঙ্গাপুরে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং কিম জন আন-এর শীর্ষ বৈঠকের পর উত্তর কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্ক স্বাভাবিক হবার ইঙ্গিত মিলেছিল।

কিন্তু ভিয়েতনামে দ্বিতীয় বৈঠকের পর সম্পর্ক আবারো তিক্ত হয়েছে।

এই উত্তেজনার মধ্যে উত্তর কোরিয়া কিছু অস্ত্র পরীক্ষা করেছে। এই মাসের শুরুতে উত্তর কোরিয়া স্বল্প পাল্লার কিছু মিসাইল পরীক্ষা করেছে।

উত্তর কোরিয়ার এসব কার্যক্রম জাপানকে উদ্বিগ্ন করেছে। ২০১৭ সালে উত্তর কোরিয়া কিছু ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছিল যেগুলো জাপানের উপর দিয়ে উড়ে গিয়েছিল।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তখন বলেন, উত্তর কোরিয়া চাইলে এসব ক্ষেপণাস্ত্র বাধা দিতে পারে।

বাণিজ্য ঘাটতি কথা বলার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জাপান সফর করছেন।

তবে এই সফরে উত্তর কোরিয়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে পারে।

এই সফরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জাপানের নতুন সম্রাটের সাথেও দেখা করবেন। জাপানের সম্রাট সিংহাসনে বসার পর তিনি হবেন প্রথম মার্কিন প্রেসিডেন্ট যিনি জাপানের