ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯: ব্রিস্টলে বৃষ্টি বাড়ছে, খেলা হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম

আজ কিছুক্ষণ আগে ব্রিস্টলের আকাশ
Image caption আজ কিছুক্ষণ আগে ব্রিস্টলের আকাশ

ব্রিস্টলে বৃষ্টি হচ্ছে,আবহাওয়া এমনই যে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার মধ্যে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এর খেলাটি হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। সেখানে টসও হয়নি, এবং সর্বশেষ বার্তায় বলা হয়েছে দুদলেরই অধিকাংশ ক্রিকেটার এখনো মাঠে আসেননি।

স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে দশটা অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় আম্পায়ারদের মাঠ পর্যবেক্ষণের কথা ছিলো সেটিও হয়নি আবহওয়ার বৈরিতার কারণে।

সবশেষ খবরে বলা হচ্ছে স্থানীয় সময় সোয়া ১২টার দিকে অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় বিকেল সোয়া পাঁচটায় মাঠ পর্যবেক্ষণ করবেন আম্পায়াররা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সর্বশেষ যে বার্তা এসেছে সেখানে বলা হয়েছে দুদলেরই অধিকাংশ ক্রিকেটার এখনো মাঠে আসেননি।

স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে মাঠের দিকে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। পরে সেই সময় পরিবর্তন করে ১১টায় নেয়া হয়।

বিবিসি বাংলায় আরো খবর:

এটিএম বুথ: কতভাবে হ্যাক হতে পারে?

আজ ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে বাংলাদেশের সামনে কঠিন সমীকরণ

পাঁচ বছরের মধ্যে অবৈধ শ্রমিক তাড়াবে মালয়েশিয়া?

Image caption ব্রিস্টলে স্টেডিয়ামের বাইরে

সকাল নয়টায় ব্রিস্টলের সিটি সেন্টার থেকে স্টেডিয়ামে রাস্তায় যাওয়ার পথে বৃষ্টি ছিল না। কিন্তু খেলার সময় কাছে আসার সাথে সাথে বাড়ে বৃষ্টি।

এর আগে আবহাওয়া পূর্বাভাসেও আজ মঙ্গলবার ব্রিস্টলে পুরো দিন বৃষ্টির কথা ছিল।

ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে সোমবার ও মঙ্গলবার নটিংহ্যামশায়ার ও হ্যাম্পশায়ার, সারে ও ইয়র্কশায়ার ও কেন্টস ও সমারসেটের খেলা পরিত্যক্ত হয়েছে।

ভক্তরা জড়ো হয়েছেন ব্রিস্টলে

বৃষ্টির পূর্বাভাস সত্বেও ব্রিস্টলে বাংলাদেশের সমর্থকরা এসেছেন, তারা আশা করছেন বাংলাদেশের ম্যাচটি যাতে মাঠে গড়ায়।

একজন সমর্থক বলছিলেন, "এই ম্যাচটি খুব গুরুত্বপূর্ণ, হয়তো এখন আমাদের কোনো উপকারে আসবে না কিন্তু সেমিফাইনালে যখন পয়েন্ট গুনতে হবে তখন এই এক দুই পয়েন্ট বিশাল পার্থক্য তৈরি করে দেবে।"

বিবিসি বাংলায় আরো খবর:

ক্রিকেট: বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে শক্তিমত্তার পার্থক্য

আজ ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে বাংলাদেশের সামনে কঠিন সমীকরণ

Image caption খেলা দেখতে আসা অনেক বাংলাদেশ সমর্থকই আবহাওয়ার কারণে হতাশ

আজমাইন বাংলাদেশ দলের একজন ভক্ত, তিনি লন্ডন থেকে ব্রিস্টলে এসেছেন খেলা দেখতে, কিন্তু এখানে এসে তার মন খারাপ।

"অনেক দূর থেকে এসেছি, আশা করেছিলাম বাংলাদেশের জয় দেখতে পারবো কিন্তু এখন ভয় হচ্ছে খেলাই দেখতে পারবো কি না" - বলছিলেন তিনি। যদি বৃষ্টির বাধা বা অন্য কোনো কারণে পয়েন্ট সমান থাকে তাহলে চারটি বিষয় বিবেচনা করা হবে। সেগুলো হচ্ছে: লীগ পর্বে কার জয় বেশি, নেট রান রেট, পরস্পরের বিরুদ্ধে আগেকার খেলার ফল, এবং টুর্নামেন্টের আগের র‍্যাঙ্কিং।

এই টুর্নামেন্টে শুধু সেমিফাইনালে ও ফাইনালে রিজার্ভ ডে আছে। সেমিফাইনাল যদি উভয় দিন পরিত্যক্ত হয় সেক্ষেত্রে লীগ পর্বে যারা পয়েন্ট তালিকায় ওপরে থাকবে - সেই দলই ফাইনাল খেলবে।

আর ফাইনাল পরিত্যক্ত হলে শিরোপা ভাগাভাগি হবে।