ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯: বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচ পরিত্যক্ত, পয়েন্ট ভাগাভাগি হলো ব্রিস্টলে

ব্রিস্টলে সকাল থেকেই থেমে থেমে বৃষ্টি চলতে থাকায় শেষ পর্যন্ত খেলা শুরু করা আর সম্ভব হয় নি।
Image caption ব্রিস্টলে সকাল থেকেই থেমে থেমে বৃষ্টি চলতে থাকায় শেষ পর্যন্ত খেলা শুরু করা সম্ভব হয় নি।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর লিগ পর্বের বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়েছে।

ব্রিস্টলে ও এই শহরের আশেপাশে সকাল থেকেই বৃষ্টি হয়েছে।

টানা বা খুব ভারি বর্ষণ হয়েছে কমই। কিন্তু থেমে থেমে বৃষ্টি ও ঠান্ডা হাওয়া ক্রিকেটের পরিবেশকে প্রতিকূল করে তুলেছে ক্রমশ।

শেষ পর্যন্ত স্থানীয় সময় দু'টোয় খেলা পরিত্যক্ত বলে ঘোষণা করা হয়। ব্রিস্টলের এই মাঠে তিনটি বিশ্বকাপ ম্যাচ আয়োজন করা হয়, যার মধ্যে দুটো ম্যাচই বৃষ্টিতে ভেসে গেলো।

আজ স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে দশটা অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় আম্পায়ারদের মাঠ পর্যবেক্ষণের কথা ছিলো - সেটিও হয়নি আবহওয়ার বৈরিতার কারণে।

স্থানীয় সময় সোয়া ১২টার দিকে অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় বিকেল সোয়া পাঁচটায় মাঠ পর্যবেক্ষণ করেন আম্পায়াররা।

এরপরেও দু'বার পর্যবেক্ষণ করেন আম্পায়াররা কিন্তু অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। বরং বৃষ্টি বেড়েছে ব্রিস্টলের কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে।

বিবিসি বাংলায় আরো খবর:

এটিএম বুথ: কতভাবে হ্যাক হতে পারে?

আজ ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে বাংলাদেশের সামনে কঠিন সমীকরণ

Image caption স্টেডিয়ামের বাইরে দর্শকদের জটলা

স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে মাঠের দিকে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। পরে সেই সময় পরিবর্তন করে ১১টায় নেয়া হয়।

ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করার সর্বশেষ সময় অর্থাৎ কাট-অফ টাইম ঠিক করা হয় ৪ টা ১৫ মিনিটে, স্থানীয় সময়।

ভক্তরা হতাশ

ডেনমার্ক থেকে এসেছিলেন এক দম্পতি - যারা শুধুমাত্র বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার টিকেট কেটেছিলেন।

খেলা দেখতে না পেরে হতাশ রিমি বলেন, এটা খুবই দু:খজনক। "আমি ভাবিনি এমনটা হবে, যদিও পূর্বাভাস ছিল। তবু আশা করছিলাম, যাতে এমন কিছু না হয়।"

বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থক গোষ্ঠী 'দৌড়া বাঘ আইলো'র একজন প্রতিনিধি সৈয়দা তাহিয়া তাসনিম বাংলাদেশের সবগুলো খেলার টিকেট কেটেছেন। লন্ডন থেকে তিনি ব্রিস্টলে এসেছেন বাবার সাথে। আসার পর আবহাওয়ার এমন অবস্থা দেখে মন খারাপ হয়েছে তার।

তবে ব্রিস্টলে বসবাসরত বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকরা বেশ আয়োজন করে ম্যাচ দেখতে আসেন কিন্তু তারা হতাশ না হয়ে স্টেডিয়ামের চারপাশ সরব করে রাখেন পুরোটা সময়।

সম্পর্কিত বিষয়