বরগুনা হত্যাকাণ্ড: প্রধান আসামি নয়ন বন্ড 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত

হামলাকারীদের হাত থেকে রিফাতকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন তার স্ত্রী আয়েশা আক্তার। ছবির কপিরাইট ভিডিও থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট
Image caption হামলাকারীদের হাত থেকে রিফাতকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন তার স্ত্রী আয়েশা আক্তার।

বাংলাদেশের বরগুনায় স্ত্রীর সামনে প্রকাশ্যে স্বামী রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাব্বির আহমেদ নয়ন, যিনি 'নয়ন বন্ড' নামে পরিচিত তিনি পুলিশের সঙ্গে কথিত 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত হয়েছেন।

বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবির মোহাম্মদ হোসেন বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, বরগুনার পূর্ব বুড়িরচর গ্রামে রাত আনুমানিক চারটার পরে এ ঘটনা ঘটে।

মি. হোসেন জানিয়েছেন, গোপন খবরের ভিত্তিতে নয়নকে গ্রেপ্তারের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল্লাহ তাহেরের নেতৃত্বে অভিযান চালায় পুলিশ।

পুলিশের দলটি পূর্ব বুড়িরচর গ্রামে পৌঁছালে আকস্মিক অজ্ঞাত ব্যক্তিরা পুলিশের ওপর গুলি ছোঁড়ে।

এ সময় পুলিশ পাল্টা গুলি চালালে একজন ব্যক্তি নিহত হন, যাকে ভোরে স্থানীয় ব্যক্তিরা নয়ন বন্ড বলে চিহ্নিত করে।

পুলিশ কর্মকর্তা মি. হোসেন জানিয়েছেন, গোলাগুলিতে চারজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন এবং তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন:

'চিৎকার করেছি, সবাইকে বলেছি - ওরে বাঁচান'

বরগুনা হত্যাকাণ্ড: ঘটনাস্থলে থাকলে আপনি কী করতেন?

রিফাতকে বাঁচাতে কেউ এগিয়ে আসেনি কেন

২৬শে জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে নেয়াজ রিফাত শরীফ নামে এক যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান রিফাত।

সামাজিক মাধ্যমে এ ঘটনার ভিডিও প্রকাশিত হবার পর বিষয়টি নিয়ে দেশ জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

পরে নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজীসহ ১২জনের বিরুদ্ধে ২৭ জুন হত্যা মামলা দায়ের করেন রিফাত শরীফের বাবা মো. আব্দুল হালিম দুলাল শরীফ।

তারই প্রেক্ষিতে আসামিদের ধরতে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে পুলিশ।

ছবির কপিরাইট GOOGLE MAPS
Image caption বরগুনা

সম্পর্কিত বিষয়