সৌদি আরবে র‍্যাপার নিকি মিনাজের কনসার্ট বাতিল

উত্তেজক পারফরম্যান্সের জন্য পরিচিত রিকি মিনাজ ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption উত্তেজক পারফরম্যান্সের জন্য পরিচিত নিকি মিনাজ।

সৌদি আরবের সংগীত উৎসবে শেষ পর্যন্ত অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করেছেন র‍্যাপার নিকি মিনাজ।

নারী ও এলজিবিটি গোষ্ঠীর অধিকারের সমর্থনে জেদ্দায় তার ওই কনসার্টে অংশ নেয়ার কথা ছিলো।

কিন্তু ওই কনসার্টকে নিয়ে তীব্র আলোচনা সমালোচনা তৈরি হয়েছিলো।

এছাড়া চরম রক্ষণশীল সৌদি সমাজে নিকি মিনাজের পোশাক ও গানের ভাষা কিভাবে নেয় - তা নিয়েও প্রশ্ন ছিলো।

সৌদি আরব সাম্প্রতিক সময়ে বিনোদনমূলক নানা বিষয়ের ওপর বাধা-নিষেধ সহজ করে আনার চেষ্টা করছে।

গত অক্টোবরে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সাংবাদিক জামাল খাসোগজী হত্যাকাণ্ডের পর সৌদি আরবে মানবাধিকার রেকর্ড নিয়ে সমালোচনা আরও জোরদার হয়।

সৌদি আরবে নিকি মিনাজের কনসার্ট নিয়ে বিস্ময়

স্পেনের মতো 'ষাঁড় দৌড়' উৎসব করতে চায় সৌদি আরব

সিনেমা, বিনোদনে শত শত কোটি ডলার ঢালছে সৌদি

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption খোলামেলা পোশাক এবং যৌন বক্তব্য সংবলিত গানের কারণে নিকি মিনাজের বিশেষভাবে পরিচিত রয়েছে

এরপর এই মার্চে আবারো দেশটি তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে দশজন নারী অধিকার কর্মীকে বিচারের মুখোমুখি করার পর।

এখন নিজের কনসার্ট বাতিল করে দেয়া এক বিবৃতিতে নিকি মিনাজ বলছেন, "সতর্ক পর্যবেক্ষণের পর জেদ্দা ওয়ার্ল্ড ফেস্টে আমার নির্ধারিত কনসার্ট নিয়ে এগিয়ে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি।"

এর আগে শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন নিকি মিনাজের কাছে লেখা এক খোলা চিঠিতে ১৮ই জুলাইয়ের ওই ফেস্টিভ্যাল থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয়ার অনুরোধ জানায়।

তারা 'রাজতন্ত্রের অর্থ প্রত্যাখ্যান' করে নিজের প্রভাব আটক নারী অধিকার কর্মীদের জন্য ব্যবহারের পরামর্শ দেন তাকে।

তবে নিকি মিনাজই সৌদি আরবের আমন্ত্রণ পেয়ে বিতর্ক তৈরি করার প্রথম শিল্পী নন।

এ বছরের শুরুতেই মারিয়া ক্যারি তার অনুষ্ঠান বাতিল করতে মানবাধিকার কর্মীদের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।