পাকিস্তানে মাদ্রাসা শিক্ষায় সংস্কার আনা হচ্ছে

পাকিস্তানের একটি মাদ্রাসা ছবির কপিরাইট RIZWAN TABASSUM
Image caption পাকিস্তানের করাচি শহরের একটি মাদ্রাসায় পরীক্ষা চলছে

পাকিস্তানের সরকার বলছে, উগ্রপন্থী মতাদর্শ ছড়ানো ঠেকাতে দেশটির মাদ্রাসা শিক্ষার সংস্কারের লক্ষ্যে এক পরিকল্পনার ব্যাপারে তারা ধর্মীয় নেতাদের সাথে একমত হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী শাফকাত মাহমুদ বলেছেন, সেখানে অন্য কোন ধর্ম বা সম্প্রদায়ের প্রতি ঘৃণাসূচক উপাদান থাকবে না।

পাকিস্তানে তিরিশ হাজারেরও বেশি মাদ্রাসা রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই দেশটির দরিদ্র মানুষদের জন্য মাদ্রাসায় যাওয়াই একমাত্র শিক্ষালাভের সুযোগ।

সরকার বলছে, এই মাদ্রাসাগুলোকে নিবন্ধিত করা হবে, এবং সেখানে ইংরেজি, গণিত এবং বিজ্ঞানও পড়ানো হবে।

সরকার আশা করছে, মাদ্রাসার নতুন পাঠ্যসূচি এমন হবে যাতে এখান থেকে পাস করে বেরুনোর পর ছাত্রদের চাকরি পাবার ক্ষেত্রে তা সহায়ক হয়।

পাকিস্তানের মাদ্রাসাগুলোর বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ উঠছে যে এগুলোতে উগ্রপন্থী দৃষ্টিভঙ্গী প্রচার করা হয়, এবং এখান থেকে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত যুবকরা যোগ দেয় জঙ্গী ইসলামপন্থী গ্রুপগুলোতে।

এর আগেও বিভিন্ন সরকারের সময় এধরনের সংস্কারের উদ্রোগ নেওয়ার পর ধর্মীয় নেতাদের বাধার কারণে ব্যর্থ হয়েছে।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়তে পারেন:

ইমরান খান কি পাকিস্তানকে বদলে দিতে পারবেন?

ইমরান খান কি নতুন পাকিস্তানের দিশারি?

সম্পর্কিত বিষয়