সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে মস্কোতে হাজারো নাগরিকের বিক্ষোভ

শনিবার মস্কোতে আয়োজিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করে হাজার হাজার মানুষ ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption শনিবার মস্কোতে আয়োজিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করে হাজার হাজার মানুষ

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে ২০ হাজারের বেশি মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে জড়ো হয়।

সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীরা যেন অংশগ্রহণ করতে পারে, সেই দাবিতে হয় এই বিক্ষোভ।

নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার সক্ষমতা অর্জন করতে জন্য অন্তত ৫০০০ মানুষের স্বাক্ষর জড়ো করতে হয়, যা বিরোধী প্রার্থীরাই জোগাড় করেছে ।

সবচেয়ে প্রভাবশালী বিরোধী নেতা অ্যালেক্স নাভালনিসহ অন্যান্য বিরোধী দলীয় নেতারাও সমর্থকদের সাথে বিক্ষোভে যোগ দেন।

বিরোধী দলের অন্তত ৩০ জন প্রার্থীকে নির্বাচনে অংশ নিতে দেয়া হচ্ছে না।

প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রশাসনের কাছে আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করেছেন যে, প্রশাসনবিরোধী নেতাদের পক্ষে জড়ো করা সমর্থকদের স্বাক্ষর, যে পদ্ধতিতে যাচাই করে বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে - তা ভুল।

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে যেন বিরোধী নেতাদের অংশ নিতে দেয়া হয় সে দাবিতে বিক্ষোভ করছে বিক্ষোভকারীরা

আরও পড়তে পারেন:

নাভালনি কি পুতিনকে চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন?

যেদিন প্রেসিডেন্ট পুতিন প্রকাশ্যে কেঁদেছিলেন

কোরিয়া যুদ্ধে '২১ দিনে মারা যাবে ২০ লাখ লোক'

বিক্ষোভ সমাবেশে মি. নাভালনি বলেন, "আমরা তাদের দেখিয়ে দেবো যে এটি একটি বিপজ্জনক খেলা। আমরা আমাদের প্রার্থীদের জন্য লড়াই করবো।"

তিনি দৃঢ়ভাবে বলেন যে প্রার্থীদের নির্বাচনের জন্য রেজিস্টার না করা হলে আগামী সপ্তাহে এর চেয়ে বড় পরিসরে বিক্ষোভ আয়োজন করা হবে।

এরই মধ্যে লিউবিয়ভ সোবোল নামের এক নারী প্রার্থী নির্বাচনে মনোনয়নের আবেদন বাতিল হওয়ার প্রতিবাদে গত এক সপ্তাহ ধরে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন।

ফেসবুকে বিক্ষোভের আয়োজকরা জানিয়েছে যে তারা 'দুর্বৃত্ত, জালিয়াত, প্রতারক এবং চোর মুক্ত' রাশিয়ার জন্য বিক্ষোভ করছে।

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption বিক্ষোভকারীরা 'জালিয়াত' মুক্ত রাশিয়া তৈরি করতে চায়

যদিও এই বিক্ষোভ র‍্যালি আয়োজনের জন্য স্থানীয় প্রশাসনই অনুমতি দেয়।

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের নির্বাচনে অংশ নিতে দেয়ার দাবিতে হওয়া এক বিক্ষোভ র‍্যালি থেকে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গত সপ্তাহে গ্রেফতার করে পুলিশ।

রাশিয়ায় ব্যাপকহারে দুর্নীতি বৃদ্ধি এবং জীবনযাত্রার মান নামতে থাকার কারণে সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের ক্ষোভ বেড়েছে; এসব কারণে প্রেসিডেন্ট পুতিনের প্রতি মানুষের সমর্থনও কিছুটা কমেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত বিষয়