জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় একদিনে ৩৫ কোটি গাছ লাগিয়েছে ইথিওপিয়া

গাছ লাগানো কর্মসূচী
Image caption গাছ লাগানো কর্মসূচীতে যাতে সরকারি কর্মকর্তারা অংশ নিতে পারে তার জন্য সব সরকারি অফিস বন্ধ ঘোষণা করে ইথিওপিয়া

আফ্রিকার দেশ ইথিওপিয়াতে একদিনে রোপণ করা হয়েছে ৩৫০ মিলিয়ন বা ৩৫ কোটি গাছ।

এই প্রকল্পের সাথে যুক্ত কর্মকর্তারা মনে করছেন, এটি একটি বিশ্ব রেকর্ড।

খরা প্রবণ এই দেশটিতে জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলা করা এবং দেশটিকে ডিফরেস্টেশন বা বন-উজাড় হয়ে যাবার অবস্থা থেকে বাঁচাতে এই প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ স্বয়ং এই প্রকল্পটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

সরকারী কর্মকর্তারাও যেন বৃক্ষরোপণ কাজে অংশ নেয়ার সুযোগ পায় সেই লক্ষে কিছু সরকারী অফিসও বন্ধ রাখা হয়।

আরো পড়তে পারেন:

চলতি বছর যে ১০টি গাছ আবিষ্কার হয়েছে

ইন্দোনেশিয়ায় ড্রাগন বাঁচানোর লড়াইয়ে গ্রামবাসীরা

মোবাইল যোগাযোগের মাধ্যম যখন গাছ

Image caption প্রধানমন্ত্রী আবি বৃক্ষরোপন কর্মসূচীতে অংশ নেন

জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী, বিংশ শতকের শুরুর দিকে ইথিওপিয়ার বনভূমির পরিমাণ ছিল প্রায় ৩৫ শতাংশ। কিন্তু ২০০০ সালের শুরুর দিকে তা নেমে আসে প্রায় ৪ শতাংশের কাছাকাছি।

মি. আহমেদ তার গ্রিন লিগেসি ইনিশিয়েটিভ-এর অংশ হিসেবে এই বৃক্ষ-রোপণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

সারা দেশের প্রায় ১০০০টি স্থানে এবারে বৃক্ষরোপণ কার্যক্রমটি চলছে।

আদ্দিস আবাবা থেকে বিবিসির প্রতিবেদক জানিয়েছে, স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে রোপণ হওয়া এই বিপুল পরিমাণ বৃক্ষের প্রাথমিক বীজ বপনের কাজটি করা হয়।

ইথিওপিয়ার আবিষ্কার ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী এক টুইটের মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, ১২ ঘণ্টায় দেশটিতে মোট ৩৫ কোটি গাছ রোপণ করা হয়েছে।

এখানেই শেষ নয়। ইথিওপিয়া স্থানীয় জাতের মোট ৪ বিলিয়ন গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করেছে।

জাতিসংঘ, আফ্রিকান ইউনিয়ন এবং ইথিওপিয়াতে থাকা বিদেশী রাষ্ট্রদূতদেরকে বৃক্ষ রোপণ কাজে সম্পৃক্ত করা হয়।

একদিনে রেকর্ড সংখ্যক গাছ রোপণ করার বর্তমান রেকর্ডটি রয়েছে ভারতের দখলে। ২০১৬ সালে দেশটিতে একদিনে ৫ কোটি গাছ রোপণ করা হয়েছিল।

তবে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের সমালোচকেরা বলছেন, ইথিওপিয়াতে সরকার যে সব সমস্যায় ডুবে রয়েছে সেসব থেকে মানুষের দৃষ্টি ফেরাতেই বৃক্ষ রোপণ নিয়ে এই প্রচারাভিযান শুরু করা হয়।

সম্পর্কিত বিষয়