আবরার হত্যা: বুয়েটে বিক্ষোভ অব্যাহত, দশ দফা দাবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য প্রাঙ্গণে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা বিক্ষোভ করছে
Image caption ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য প্রাঙ্গণে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা বিক্ষোভ করছে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় বুধবারও প্রতিষ্ঠানটিতে ছাত্র বিক্ষোভ অব্যাহত আছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য প্রাঙ্গণে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা বিক্ষোভ করছে।

বুয়েটের শিক্ষার্থীরা ১০ দফা দাবি তুলে ধরেছে:

১. অভিযুক্তদের ১১ অক্টোবর ২০১৯ তারিখের বিকাল ৫টার মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কার নিশ্চিত করতে হবে।

২. আবরারের পরিবারের সকল ক্ষতিপূরণ ও মামলার খরচ বুয়েটকে বহন করতে হবে।এই মর্মে অফিসিয়াল নোটিশ ১১ তারিখ বিকাল ৫টার মধ্যে প্রদান করতে হবে।

Image caption শিক্ষক শিক্ষার্থীদের একাংশ

৩. মামলা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্বল্প সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করার জন্য বুয়েট প্রশাসনকে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে।

৪. বুয়েট প্রশাসনকে সক্রিয় থেকে সমস্ত প্রক্রিয়া নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করতে হবে এবং নিয়মিত ছাত্রদের আপডেট করতে হবে।

৫. অবিলম্বে চার্জশিটের কপি-সহ অফিসিয়াল নোটিশ দিতে হবে।

৬. ১৫ই অক্টোবরের মধ্যে বুয়েটের সাংগঠনিক ছাত্র রাজনীতি স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ করতে হবে।

Image caption আজ বুধবার আবরার হত্যায় বিক্ষোভ হচ্ছে বুয়েটে

৭. বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি কেন ৩০ ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়ার পরেও উপস্থিত হয়নি এবং পরে ৩৮ ঘণ্টা পরে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের সাথে বিরূপ আচরণ করে এবং কোন প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে স্থান ত্যাগ করেন তাকে সশরীরে আজ বুধবার দুপুর ২টা মধ্যে জবাবদিহি করতে হবে।

৮.আবাসিক হলগুলোতে র‍্যাগের নামে ভিন্নমতাবলম্বীদের উপর সকল প্রকার শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।

৯. পূর্বে ঘটা এমন ঘটনার প্রকাশ এবং পরে ঘটা এমন ঘটনার প্রকাশের জন্য কমন প্লাটফর্ম থাকতে হবে। এবং নিয়মিত প্রকাশিত ঘটনা রিভিউ করে দ্রুততম সময়ে বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে। এই প্লাটফরম হিসেবে বুয়েটে বিআইআইএস অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে হবে।

১০. শেরে বাংলা হলের প্রভোস্টকে ১১ অক্টোবর বিকাল ৫টার মধ্যে প্রত্যাহার করতে হবে।

আজ সন্ধ্যা সাতটায় আবরারের স্মরণে বুয়েট শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্বলন করা হবে। আন্দোলনকারীরা সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিজ নিজ ক্যাম্পাসে মোমবাতি প্রজ্বলনের আহ্বান জানায় এসময়।

১০ দফা দাবি মানা না হলে বুয়েটের সব একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে তারা দাবি করে। এর মধ্যে ১৪ তারিখে ভর্তি পরীক্ষা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

আরো পড়ুন:

ভারতের রেডার সিস্টেম দিয়ে নিরাপত্তা আর নজরদারি

আবরার হত্যা: বহিষ্কার করে দায়িত্ব এড়াচ্ছে ছাত্রলীগ?

সেক্স ভিডিওর 'মোটা মেয়েটি' যখন আইন তৈরির অনুপ্রেরণা