ক্রিকেট: ভারত সিরিজের আগে অপ্রস্তুত বোর্ড ও ক্রিকেটাররা, খেলায় প্রভাব পড়বে কতটা?

ক্রিকেট, বাংলাদেশ, ভারত ছবির কপিরাইট রতন গোমেজ
Image caption ভারত সফরে মুশফিক মাহমুদুল্লাহ'র ওপর বাড়তি দায়িত্ব থাকবে

তেসরা নভেম্বর, অর্থাৎ আসছে সপ্তাহের রোববার থেকেই শুরু হচ্ছে প্রতিক্ষিত ও আলোচিত বাংলাদেশ বনাম ভারত সিরিজ।

এই সিরিজ মাঠে গড়াবে কি না গেল সপ্তাহেই তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়, যখন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ধর্মঘটে যান।

পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন ও রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর দুপক্ষে সুরাহা হয় আপাতত কিন্তু এরপর আবার সাকিব আল হাসানকে চুক্তির শর্ত ভঙ্গের দায়ে কারণ দর্শাও নোটিস পাঠিয়ে আবারো বোর্ড ও সাকিব মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়ায়।

যদিও সাকিবের পক্ষ থেকে এনিয়ে কোনো বক্তব্য এখনো পাওয়া যায়নি, অপরদিকে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, কারণ দর্শানোর নোটিস পাঠানোর দিনই কড়া ভাষায় সাংবাদিকদের কাছে বলেছেন, "সাকিবের ব্যাপারে কোনো ছাড় নেই।"

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা যখন দুই ভাগে ভাগ হয়ে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছিল, তখন আউট হয়ে ফিরে আসার সময় মুশফিকুর রহিমের একজন দর্শক 'কিছু একটা' বলেন।

সেই 'কিছু একটা'র জবাবে মুশফিক গ্যালারির দেয়াল বেয়ে উঠে গিয়ে জবাব দিতে যান।

সব মিলিয়ে ক্রিকেটারদের মানসিক অবস্থা দৃশ্যত একটা নেতিবাচক জায়গায় আছে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

ছবির কপিরাইট রতন গোমেজ
Image caption ভারতের বিপক্ষে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে সাকিব আল হাসান

সাবেক জাতীয় কোচ নাজমুল আবেদীন ফাহিম মনে করছেন, ক্রিকেটাররা একটু বিরক্ত ও অস্বস্তিকর অবস্থায় আছে।

তিনি বলছেন, "অনেকদিনের পুঞ্জীভূত ক্ষোভ নিয়ে ক্রিকেটাররা এক হয়েছিলেন, বোর্ড এটা আশা করেনি। বোর্ডের থেকে আমরা বিভিন্ন মন্তব্য শুনেছি যেগুলো তেমন ভালো শোনায়নি"।

ক্রিকেটারদের কিছু কিছু আচরণ বোর্ড ও সাধারণের কাছে গ্রহনযোগ্য হয়নি। এটার যত দ্রুত পরিসমাপ্তি ঘটানো যায় তত ভালো, আর এটা নিয়ন্ত্রণে না নিয়ে এলে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে খেলার ধরণে প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করেন মি. ফাহিম।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে ভারতের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ সাম্প্রতিক সময়ে খুব ভালো ক্রিকেট খেলেনি।

বিশ্বকাপে অষ্টম হওয়ার পর শ্রীলঙ্কার মাটিতে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে দলটি।

এরপর ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত কাপ জিতলেও, আফগানিস্তানের সাথে একই সিরিজে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হেরে যায়।

সব মিলিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটীয় অঙ্গনে বেশ কোনঠাসা হয়েই ভারত সফরে যাচ্ছে।

ভারতকে শক্তিশালী দল আখ্যা দিয়ে নাজমুল আবেদীন ফাহিম বলেন, "বাংলাদেশ দল আক্ষরিক অর্থেই খুব ভালো খেলেনি। শুধু ভারত প্রতিপক্ষ বলেই নয়, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দিক থেকেও সিরিজটা গুরুত্বপূর্ণ।

তবে নতুন টিম ম্যানেজমেন্ট নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন মি: ফাহিম।

এই দলকে সামলাতে নতুন একটা দল কাজ করছে যেখানে রাসেল ডমিঙ্গো হেড কোচ এবং ডেনিয়েল ভেট্টোরি কাজ করছেন স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে।

"নতুন টিম ম্যানেজমেন্ট দলটিকে উজ্জীবিত করতে কাজ করবে নিশ্চিতই, কিন্তু সিনিয়র ক্রিকেটার যারা থাকবেন তাদের দায়িত্ব থাকবে হাল ধরার।"

তবে সাকিব আল হাসানকে কেন্দ্র করে আলোচনা সমালোচনা চলছে, তামিম ইকবাল পারিবারিক কারণে ছুটি নিয়েছেন।

সিনিয়রদের মধ্যে আছেন মুশফিকুর রহিম, যিনি প্রস্তুতি ম্যাচেই মেজাজ হারিয়ে দর্শকের কথার জবাব দিতে গিয়েছেন।

আছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, যিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাটে রান পেলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বলার মতো পারফর্ম্যান্স নেই।

তাই একটা শংকা তৈরি হয় যে বহুল, প্রতীক্ষিত ভারত সিরিজে কি ব্যর্থ হবে ক্রিকেটাররা?

নাজমুল আবেদীন ফাহিম অবশ্য মনে করেন এই সিরিজটি তরুণ ক্রিকেটারদের তো বটেই সিনিয়র ক্রিকেটারদেরও একটা প্রমাণের মঞ্চ। যেহেতু সব কিছুই তাদের বিপরীতে।

এটাকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে খেললে, দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররা ভারতে যেমন খেলে গিয়েছে তার চেয়ে ভালো খেলবে বাংলাদেশ, এটা মনে করেন মি: ফাহিম।

ছবির কপিরাইট রতন গোমেজ
Image caption সাকিব আল হাসানদের সাথে কাজ করছেন ডেনিয়েল ভেট্টোরি

সাকিব আল হাসানের অবশ্য নানা সময় বিতর্কে জড়িয়ে ভালো খেলে ফিরে আসার পুরোনো ইতিহাস রয়েছে।

২০১৪ সালে ৩ মাসের নিষেধাজ্ঞার পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সাকিব প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসেই ৬টি উইকেট নিয়েছেন।

এরপর দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ সেরা হন সাকিব আল হাসান, যেখানে দুই ইনিংস মিলিয়ে ১০টি উইকেট ও ব্যাট হাতে সেঞ্চুরি করেন সাকিব।

এই সিরিজে সিরিজ সেরার পুরষ্কার পান সাকিব আল হাসান।

এরপরে ২০১৭ সালে একটি ছুটি নেয়া নিয়ে বোর্ড ও সাকিব মুখোমুখি অবস্থানে ছিল।

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিদাহাস ট্রফির মাঝপথে যখন ফাইনালে খেলা অনিশ্চিত হয়ে পরে, সাকিবকে উড়িয়ে নেয়া হয় শ্রীলঙ্কায়, বেশ আগ্রাসী অধিনায়কত্ব করেন সাকিব। ব্যাট হাতে মাহমুদু্ল্লাহ রিয়াদ দলকে ফাইনালে নিয়ে যান।

এরপরে ক্যারিবিয়ান সফরে আমেরিকায় টি-টোয়েন্টি সিরিজে সিরিজ সেরা হন সাকিব আল হাসান।

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯ এর আগেও ফটোসেশনে অংশ না নেয়া নিয়ে যখন তুমুল সমালোচনার মুখে সাকিব আল হাসান বিশ্বকাপে গিয়ে ৬০৬ রান ও ১১টি উইকেট নিয়ে বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হওয়ার দৌঁড়ে ছিলেন।

সম্পর্কিত বিষয়