যুক্তরাষ্ট্রে এমন একটি আপেলের চাষ শুরু হয়েছে যা 'এক বছর সতেজ থাকবে'

উজ্জল লাল রঙয়ের এই আপেলটি রংয়ের কারণে ইনস্টাগ্রামেও জনপ্রিয় হবে বলে মনে করা হচ্ছে ছবির কপিরাইট PVM
Image caption উজ্জল লাল রঙয়ের এই আপেলটি রংয়ের কারণে ইনস্টাগ্রামেও জনপ্রিয় হবে বলে মনে করা হচ্ছে

যুক্তরাষ্ট্রে রবিবার থেকে নতুন এক ধরণের আপেল বিক্রি শুরু হয়েছে যেটি এক বছর পর্যন্ত সতেজ থাকবে বলে বলা হচ্ছে।

দুই দশক যাবত এই আপেলের জাতটি নিয়ে গবেষণা করার পর আপেলটি ব্যবসায়িকভাবে ওয়াশিংটন রাজ্যের কৃষকদের চাষ করার জন্য অনুমতি দেয়া হচ্ছে। শুধু ওয়াশিংটনের কৃষকরা আগামী দশ বছর এই জাতের আপেল চাষ করতে পারবে।

১৯৯৭ সালে ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটি গবেষণামূলকভাবে এই আপেলটি প্রথমবার চাষ করে।

নতুন ধরণের এই আপেলের চাষ ব্যবসায়িকভাবে শুরু করতে ১ কোটি ডলার খরচ হয়েছে।

আরো পড়ুন:

বাঙালিদের কেন আপেল-স্ট্রবেরি না খেলেও চলবে?

৭০ দিন পর কাশ্মীরে ফের চালু হচ্ছে মোবাইল ফোন

ধর্ষণকারী কোন ধর্মের, ভারতে বিতর্ক যখন তা নিয়ে

কসমিক ক্রিস্প নামের এই আপেলের জাতটি হানি ক্রিস্প ও এন্টারপ্রাইজ, এই দুই ধরণের আপেলের সংমিশ্রণ।

ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটিতে এই আপেলটির চাষ ও বংশবৃদ্ধি বিষয়ক কার্যক্রম পরিচালনা করা একজন গবেষক কেট ইভান্স জানান এই আপেল ফ্রিজে থাকলে ১০ থেকে ১২ মাস পর্যন্ত খাওয়ার যোগ্য থাকে এবং আপেলের স্বাদ ও অন্যান্য গুণাগুণও অক্ষুন্ন থাকে।

এখন পর্যন্ত ১ কোটি ২০ লাখের বেশি কসমিক ক্রিস্প আপেলের গাছ লাগানো হয়েছে এবং কঠোর লাইসেন্সিং পদ্ধতি দিয়ে নিশ্চিত করা হয়েছে যে ওয়াশিংটন বাদে দেশের অন্যান্য এলাকার কৃষকরা যেন এই জাতের আপেল চাষ করতে না পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি আপেল হয় ওয়াশিংটনে।

ঐ এলাকার অন্যতম জনপ্রিয় আপেলের জাত গোল্ডেন ডেলিশাস এবং রেড ডেলিশাস। তবে সম্প্রতি পিঙ্ক লেডি ও রয়্যাল গালা জাতের আপেলও বেশ জনপ্রিয় হয়েছে।

কলার পর যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ফল আপেল।

বিবিসি বাংলার আরো খবর:

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না
আপেল থেকে তৈরি কৃত্রিম কান

সম্পর্কিত বিষয়