ক্রিকেট দলের সম্ভাব্য পাকিস্তান সফর: ভিন্ন ভিন্ন মত দিচ্ছে বিসিবি ও পিসিবি

ক্রিকেট, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড থেকে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার ব্যাপারে ইতিবাচক বার্তা পেয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

খবর এসেছে পাকিস্তান থেকে, সেখানে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেছেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট খেলতে খুব একটা ইচ্ছুক নয়, তারা তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলার প্রস্তাব দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের সফরসূচি অনুযায়ী ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে পাকিস্তানে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে যাওয়ার কথা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেন, কয়েক দফা আলোচনার পর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে।

ওয়াসিম খান বেশ দৃঢ়ভাবে বলেছেন, "বিসিবির কাছে আমি বেশ শক্তভাবে টেস্ট খেলতে না চাওয়ার কারণ জানতে চেয়েছি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনুমোদন করেছে।"

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট দল এখন দুই ম্যাচের একটি টেস্ট সিরিজ খেলতে পাকিস্তানেই অবস্থান করছে।

যদিও ওয়ানডে সিরিজের সময় শ্রীলঙ্কার দশজন নিয়মিত জাতীয় দলে খেলা ক্রিকেটার নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তানে যাননি।

তবে টেস্ট খেলতে এখন মূল দলই পাকিস্তানে গিয়েছে।

ক্রিকেট নিয়ে কিছু খবর:

নিজের বয়স নিয়ে যা বললেন আফগান বোলার রশিদ খান

আম্পায়ারদের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগের নেপথ্যে

ক্রিকেট বিনোদনের খোরাক মেটাতে ব্যর্থ বিপিএল?

দিমুথ করুনারত্নে তাদেরই একজন যিনি ওয়ানডেতে নিজের নাম সরিয়ে নিলেও এখন টেস্ট খেলছেন।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, পাকিস্তান এখন ক্রিকেট খেলার জন্য নিরাপদ।

মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব বা এমসিসি কুমার সাঙ্গাকারার নেতৃত্বে লাহোরে একটি সফর করার কথা রয়েছে। এই সফরের মূল উদ্দেশ্য অন্য দেশগুলোকে পাকিস্তানে সফর করার ব্যাপারে নিশ্চয়তা দান করা।

ধারণা করা হচ্ছে এই দলটি ফেব্রুয়ারিতে যাবে পাকিস্তানে।

ওয়াসিম খান এখন ঘটনাকে উদাহরণ হিসেবে দেখান ও বলেন, "শ্রীলঙ্কার সাথে পাকিস্তানের দুটো টেস্ট শেষের দিকে, সব ধরণের নিরাপত্তা ব্যবস্থা যথাযথ ভাবে নেয়া হয়েছে। তো এখানে বাংলাদেশের আসতে না চাওয়ার কারণ দেখি না।"

তিনি আরো বলেন, "আলোচনা শেষ হয়ে যায়নি, তারা টি-টোয়েন্টির কথা বলছে কিন্তু আমাদের জন্য অন্য দেশে টেস্ট খেলার অপশন হাতে নেই।"

পুরো ঘটনায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কারো পক্ষ থেকে টি-টোয়েন্টি খেলতে রাজি হওয়া সম্পর্কিত কোনো কথা শোনা যায়নি এখনো।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের বাসে একটি হামলা হয়েছিল

আকরাম খান বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের প্রধান বলেন, "আমরা তো সরকারের হাতে সব ছেড়ে দিয়েছি, এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে গ্রীন সিগনাল না পাওয়া পর্যন্ত আমরা কিছুই বলতে পারছিনা এবিষয়ে।"

আজ ঢাকায় বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল পাকিস্তান সফর ইস্যুতে কথা বলেন, তিনি বলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সরকারের কাছে পাকিস্তান সফর নিয়ে স্পষ্ট কিছুই জানায়নি।

"ক্রিকেট বোর্ড যাবে কি যাবে এটাও আমাদের নিশ্চয়তা দিতে হবে আমাদের।"

তিনি যোগ করেন "বিদেশে কোনো দল খেলতে গেলে সেখান থেকে চিঠি দিয়ে জানাতে হবে পাকিস্তান সরকার শুধু দেবে তা নয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এই নিশ্চয়তা আসতে হবে।"

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয় কিন্তু তিনি টেলিফোন ধরেননি।