ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের ভোটগ্রহণ ইভিএমে

ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন।

ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। এবার সব কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

দুই সিটি কর্পোরেশনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি ২০২০ তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন।

এবার সব কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণ করা হবে।

রবিবার আগারগাঁওয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা সাংবাদিকদের এই তথ্য জানিয়েছে।

কমিশনের প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে, রিটার্নিং কর্মকর্তা বা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ৩১শে ডিসেম্বর।

মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে দোসরা জানুয়ারি ২০২০।

প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ নয়ই জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ করা হবে ৩০শে জানুয়ারি।

আরো পড়ুন:

সংসদ নির্বাচন: ইভিএম ব্যবহারের ঝুঁকি কোথায়?

পুলিশ কথা না শুনলে নির্বাচন কমিশন কী করতে পারে ?

Image caption ইভিএম ব্যবহার নিয়ে বিতর্ক রয়েছে

সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হবে।

এর আগে ঢাকার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কয়েকটি কেন্দ্র ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হয়েছিল।

তবে এবার সবগুলো কেন্দ্রেই ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের ভোটগ্রহণের তারিখ ঠিক করা হলেও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ জানানো হয়নি।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৮শে এপ্রিল ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচন হয়েছিল। সেই নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন ঢাকা দক্ষিণে সাঈদ খোকন ও ঢাকা উত্তরে আনিসুল হক।

তবে ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর ২০১৯ সালের ২৮শে ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তরে উপনির্বাচন হয়, যেখানে মেয়র হয়েছিলেন আতিকুল ইসলাম।

বিবিসি বাংলার অন্যান্য খবর:

প্রতিবাদে ভ্রূক্ষেপ নেই মোদীর, নিহতের সংখ্যা ২০

শীতকালে শিশুদের রোগ থেকে দূরে রাখবেন যেভাবে

ডাকসু কার্যালয়ে ভিপি নুরুল হকের ওপর হামলা

ধর্ম অবমাননার দায়ে পাকিস্তানে শিক্ষকের মৃত্যুদণ্ড