করোনাভাইরাস: বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কাতার

কাতারে যেতে পারবেন না কোন বাংলাদেশি নাগরিক

ছবির উৎস, MikhailMishchenko

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে সতর্কতার অংশ হিসেবে বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশের নাগরিকদের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কাতার।

কাতারে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কনস্যুলার ড. মোস্তাফিজুর রহমান বিবিসিকে এ খবর নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, গতকাল (রবিবার) রাতে কাতার কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে জানিয়েছেন যে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশের উপর সাময়িক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

এটি সোমবার থেকে কার্যকর হয়েছে।

তিনি বলেন, এর ফলে বাংলাদেশ থেকে কোন নাগরিক দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবে না। এছাড়া যারা ছুটিতে এসেছেন তারাও আপাতত ফিরতে পারবেন না। সেই সাথে কাতার থেকেও কোন নাগরিক বাংলাদেশে আসবে না।

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

কাতারসহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে নারী শ্রমিক কাজ করেন (ফাইল ফটো)

তবে এই নিষেধাজ্ঞা কতদিন থাকবে তা নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

নিষেধাজ্ঞার মুখে থাকা অন্য দেশগুলো হল চীন, মিশর, ভারত, ইরান, ইরাক, লেবানন, নেপাল, পাকিস্তান, ফিলিপিন্স, দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রীলঙ্কা, সিরিয়া এবং থাইল্যান্ড।

এরই মধ্যে ইতালিতে সব ধরণের ফ্লাইট বাতিল করেছে কাতার।

দেশটিতে রবিবার আরো তিন জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানিয়েছে কাতার। এনিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৫ জনে।

জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর প্রকাশিত তথ্য মতে, ১৯৭৬ সাল থেকে শুরু করে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত কাতারে মোট ৮০৮০৯০ জন বাংলাদেশি কর্মরত রয়েছেন। প্রবাসী কর্মীদের সংখ্যার হিসাবে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে কাতার পঞ্চম।

বিবিসি বাংলার আরো খবর: