করোনাভাইরাস: রোগের বিস্তার বেড়েছে, তাই নমুনা সংগ্রহের আওতাও বাড়ছে বাংলাদেশে

করোনাভাইরাস ছবির কপিরাইট Getty Images

বাংলাদেশে মানুষের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় নমুনা সংগ্রহের কাজ এখন থেকে ভিন্নভাবে পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা বিভাগ বা আইইডিসিআর।

আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, প্রথমদিকে শুধু বিদেশ ফেরত বা করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হলেও এখন আরো বেশি সংখ্যক মানুষের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

"শুধু বিদেশ থেকে এসেছেন তা নয়, বিদেশ থেকে এসেছিলেন এমন ব্যক্তিদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাদের নমুনাও আমরা সংগ্রহ করি।"

"এছাড়াও ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি বা যাদের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদী রোগ রয়েছে, এমন ব্যক্তিদের মধ্যে কোভিড-১৯ এর লক্ষ্মণ, উপসর্গ দেখা গেলে তাদের নমুনাও আমরা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করছি," শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন আইইডিসিআরের পরিচালক।

এই ধরণের ব্যক্তিদের বাইরেও যাদের নিউমোনিয়া হয়েছে এবং নিউমোনিয়ার কারণ স্পষ্ট নয়, তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, পাশপাশি যেসব পেশার মানুষের অনেক মানুষের সংস্পর্শে আসতে হয়, তাদেরও নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

"পেশাগত কাজে যাদের অনেক মানুষের সংস্পর্শে আসতে হয় এবং কার সংস্পর্শে এসেছেন সে বিষয়ে তিনি জানেন না, এমন ব্যক্তির মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।"

এছাড়া যেসব রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন, এতদিন তাদের নমুনা সংগ্রহের জন্য হাসপাতালে আইইডিসিআরের দল গেলেও এখন থেকে হাসপাতালেই নমুনা সংগ্রহ করা হবে বলে জানান মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

"এতদিন যে টিম হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহের কাজ করছিল, তারা যেন সরাসরি মানুষকে সেবা দিতে পারে সে লক্ষ্যে এখন হাসপাতাল থেকে সরাসরি নমুনা সংগ্রহ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।"

সামাজিকভাবে বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহের কার্যক্রম চালিয়ে যাবে আইইডিসিআর।

এছাড়া দশদিনের ছুটি থাকায় যারা ঢাকার বাইরে চলে গেছেন, জেলা পর্যায়ের হটলাইনগুলোতে যোগাযোগ করলে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা অথবা চট্টগ্রামের পরীক্ষা কেন্দ্রে আনা হবে বলে জানান আইইডিসিআরের পরিচালক।

শুক্রবার পর্যন্ত বাংলাদেশে ৪৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। আর এ পর্যন্ত মারা গেছেন পাঁচ জন।

কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনের যে ব্যাখ্যা দেয়া হচ্ছে বাংলাদেশে

নিজেকে যেভাবে নিরাপদ রাখবেন করোনাভাইরাস থেকে

নতুন করোনাভাইরাস কত দ্রুত ছড়ায়? কতটা উদ্বেগের?

করোনাভাইরাস ঠেকাতে যে সাতটি বিষয় মনে রাখবেন

টাকার মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে কি?

করোনাভাইরাসের উৎপত্তি কোথায়, কেন এতো প্রাণঘাতী

করোনাভাইরাস: কীভাবে শনাক্ত করছে বাংলাদেশ?

করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরিতে অগ্রগতি কতদূর?