করোনাভাইরাস: সারা বাংলাদেশকে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ঘোষণা

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে

বাংলাদেশে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইন ২০১৮'র ক্ষমতাবলে সারা দেশকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে।

দেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এই বিজ্ঞপ্তিটি জারি করা হয় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে একমাত্র পন্থা জনসাধারণের নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বাস্তবায়ন করার উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বলে জানানো হয়।

অতীব জরুরি কোনো কারণ ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

যদিও সাধারণ ছুটি শুরু হওয়ার পর থেকে এই অনুরোধ করা হচ্ছে মানুষকে। মানুষকে ঘরে রাখা ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাফেরা করা নিশ্চিত করতে স্থানীয় প্রশাসনের সাথে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সেনাবাহিনীও কাজ করছে।

Sorry, your browser cannot display this map

তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে এই বিষয়টির ওপর বিশেষ জোর দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিটিতে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত ঘর থেকে বের হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

গত সপ্তাহে জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা ছুটির মেয়াদ বাড়ানোর বিজ্ঞপ্তিতেও সন্ধ্যা ৬টার পর জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে সংশ্লিষ্ট সরকারি প্রশাসন ও কর্তৃপক্ষের সহায়তা নিয়ে সংক্রামক রোগ আইনের ধারা প্রয়োগ করার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে নির্দেশে।

এসব আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে সংক্রমণ রোগ আইনে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।

এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় চলাচলও কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে বলেও নির্দেশনাতে বলা হয়েছে।

আইইডিসিআরের ১৬ই এপ্রিল পর্যন্ত হিসেব অনুযায়ী বাংলাদেশের অন্তত ৪৫টি জেলায় পাওয়া গেছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী।