করোনাভাইরাস: বিবিসির তদন্ত বলছে মধ্যপ্রাচ্যে ভাইরাস ছড়িয়েছে ইরানের একটি ফ্লাইট

দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টারম্যাকে মাহান এয়ারের একটি ফ্লাইট

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

মধ্যপ্রাচ্যে ভাইরাস ছড়িয়েছে মাহান এয়ারের একটি ফ্লাইট বলে বিবিসির তদন্তে প্রকাশ

ইরানের মাহান এয়ার নামে একটি এয়ারলাইনের ফ্লাইটের মাধ্যমেই মধ্যপ্রাচ্যে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছিল বলে বিবিসির এক তদন্তে জানা গেছে।

ওই ফ্লাইটের সাথে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীরও সম্পর্ক আছে বলে তদন্তে জানা গেছে।

ওই বিমানটি উড্ডয়ন নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে ইরান থেকে যাত্রী নিয়ে লেবানন এবং ইরাকে গিয়েছিল এবং এর ফলে দুটি দেশেই প্রথমবারের মতো কোভিড-১৯ ভাইরাসে সংক্রমিত লোকের অস্তিত্ব সরকারিভাবে চিহ্নিত হয়।

জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে তেহরান সরকার চীনগামী বা চীন থেকে আসা সব বিমানের ওপর সরকারিভাবে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল।

কিন্তু ফ্লাইট ট্র্যাকিং উপাত্ত থেকে দেখা যায় ইরানের একটি মাত্র এয়ারলাইন, মাহান এয়ার সেই নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করেছিল।

তাদের বিমান সরাসরি চীন গিয়েছিল এবং বিবিসির তদন্তে বেরিয়ে এসেছে যে এই মাহান এয়ারের ফ্লাইটের মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্যে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল।

এই এয়ালাইনটির সাথে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর সম্পর্ক আছে বলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ।

বিবিসি বাংলায় আরও পড়তে পারেন:

মাহান এয়ারের কিছু সূত্র বলছে, কিছু কেবিন ক্রু বিমানের ভেতরে সংক্রমিত যাত্রী দেখে উদ্বেগ প্রকাশ করতে চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু তাদের মুখ বন্ধ করে দেয়া হয়।

বিবিসির তদন্তে আরও দেখা গেছে মাহান এয়ারের বিমানে করে লেবানন এবং ইরাকে করোনাভাইরাস আক্রান্ত লোক নিয়ে যাওয়া হয়েছিল - এবং এরপরই ওই দুটি দেশে প্রথমবারের মতো কোভিড-১৯ আক্রান্ত লোকের কথা সরকারিভাবে ঘোষণা করা হয়েছিল।

মধ্যপ্রাচ্যের প্রায় সব দেশেই এখন করোনাভাইরাস সংক্রমণ কমবেশি ছড়িয়ে পড়েছে।

ইরানে কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হয় ৯৭ হাজার লোক এবং মারা যায় ৬ হাজারেরও বেশি।