ওয়াগনার গ্রুপ রুশ ভাড়াটে সৈন্যদের লিবিয়ায় পাঠিয়েছে যুদ্ধ করার জন্য

জেনারেল হাফতারের অনুগত বাহিনী ত্রিপোলির ওপর হামলা চালাচ্ছে।

ছবির উৎস, Reuters

ছবির ক্যাপশান,

জেনারেল হাফতারের অনুগত বাহিনী ত্রিপোলির ওপর হামলা চালাচ্ছে।

জাতিসংঘের ফাঁস হয়ে যাওয়া এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, রাশিয়ার ভাড়াটে সৈন্যদের একটি প্রতিষ্ঠান লিবিয়ায় বারোশর বেশি সৈন্য মোতায়েন করেছে যারা জেনারেল খলিফা হাফতারের হয়ে সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে।

লিবিয়ার এই সরকারকে সমর্থন দিচ্ছে জাতিসংঘ।

রিপোর্টটি বার্তা সংস্থা রয়টার্সের হাতে গিয়ে পৌঁছেছে যাতে দেখা যাচ্ছে ওয়াগনার গ্রুপ নামের একটি নেটওয়ার্ক লিবিয়ায় এসব সৈন্য পাঠিয়েছে।

জাতিসংঘের এই রিপোর্টটি প্রকাশিত হওয়ার আগেই সেটি গিয়ে পৌঁছোয় বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সাংবাদিকদের হাতে।

তারা দেখেছেন ৫৭ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, ওয়াগনার গ্রুপ নামের একটি রুশ নেটওয়ার্ক লিবিয়াতে এসব ভাড়াটে সৈন্যদের পাঠিয়েছে।

বলা হচ্ছে, এসব যোদ্ধারা সেখানে লিবিয়ার বিদ্রোহী নেতা জেনারেল খলিফা হাফতারের হয়ে চোরাগোপ্তা হামলাকারী এবং অন্যান্য বিশেষজ্ঞের ভূমিকা পালন করছে।

লিবিয়ায় পূর্বাঞ্চলীয় শহর বেনগাজি জেনারেল হাফতারের নিয়ন্ত্রণে এবং সেখান থেকেই তার বাহিনী রাজধানী ত্রিপোলিতে জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে।

ছবির উৎস, AFP

ছবির ক্যাপশান,

জাতিসংঘ শান্তি আলোচনা শুরু করার জন্য জেনারেল হাফতারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

সম্পর্কিত খবর:

রাজধানী ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকা দখল করার জন্যে এক বছর আগে তিনি সামরিক অভিযান শুরু করেন।

এই রিপোর্টের ব্যাপারে ওয়াগনার গ্রুপ এখনও কোন মন্তব্য করেনি।

এ বছরের শুরুর দিকে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেছিলেন যে লিবিয়ার গৃহযুদ্ধে এই রুশরা যদি যুদ্ধ করে থাকে, তারা রাশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করছে না।

তবে এরকম ভাড়াটে সৈন্যরা এর আগে সিরিয়া ও ইউক্রেনে রুশ সৈন্যদের হয়ে লড়াই করেছে।