ট্রেন্ডিং খেলা: বাবুল সুপ্রিয় বনাম হানুমা ভিহারি, কোহলি-আনুশকার কন্যার জন্ম

  • রায়হান মাসুদ
  • বিবিসি বাংলা, ঢাকা
হনুমা ভিহারি, রাভিচান্দ্রান অশ্বিন, বাবুল সুপ্রিয়

ছবির উৎস, Getty Images

ছবির ক্যাপশান,

সপ্তাহজুড়ে আলোচিত ছিল অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মধ্যকার সিডনি টেস্ট

পুরো সপ্তাহজুড়ে খেলার দুনিয়ায় আলোচিত ছিল অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের মধ্যকার সিডনি টেস্ট, যে ম্যাচের পঞ্চম দিন অর্থাৎ শেষদিনে ম্যারাথন ব্যাটিং করে দলকে হার থেকে বাঁচিয়েছেন হানুমা ভিহারি ও রাভিচান্দ্রান অশ্বিন।

সাচিন টেন্ডুলকার থেকে শুরু করে ক্রিকেটের বড় বড় কিংবদন্তীরা যখন এই দু'জনকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন, ঠিক তখন একটি টুইটে খানিকটা বিতর্ক উস্কে দিয়েছেন ভারতীয় গায়ক ও বর্তমানে রাজনীতিবিদ বাবুল সুপ্রিয়।

অন্যদিকে, ভারতীয় ক্রিকেট দলের নিয়মিত ক্যাপ্টেন ভিরাট কোহলি এবং তার স্ত্রী ও অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার কন্যাসন্তানের জন্মের খবরটিও আলোচনায় ছিল এই সপ্তাহে।

আর বাংলাদেশ দলের প্রস্তুতি এবং এক সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঢাকা আসা নিয়েও আলোচনা হয়েছে চলতি সপ্তাহে।

হনুমা ভিহারি বনাম বাবুল সুপ্রিয়

টেস্টের পঞ্চম দিনের আগে ক্রিকেট বিশ্লেষকদের একটা অংশের মত ছিল যে সিডনিতে ভারত শেষ ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩০ থেকে ৪০ ওভারের মধ্যেই গুটিয়ে যাবে।

অনেক ভারত ভক্তও আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন।

কিন্তু খেলা যখন মাঠে গড়ালো তখন একটা সময় পর্যন্ত মনে হচ্ছিল যে ভারতের জন্য জয়টাও হয়তো খুব সম্ভব।

বিশেষত, রিশাভ পান্ত যখন ওয়ানডে ম্যাচের কায়দায় বল পেটাচ্ছিলেন।

তবে পান্ত ও চেতেশ্বর পুজারা আউট হয়ে যাওয়ার পর ভারত বিপাকে পড়ে গিয়েছিল। তখনও প্রায় একটা ওয়ানডে ম্যাচের সমান খেলা বাকি।

সব মিলিয়ে জেতার জন্য ৪০৯ রানের টার্গেট ছিল ভারতের সামনে, কিন্তু ওই সময়ে হারের শঙ্কাই বরং জোরদার হচ্ছিল।

তবে হানুমা ভিহারি ও রাভিচান্দ্রান অশ্বিন মিলে ২৫৯টি বল ঠেকিয়ে দিয়ে টেস্টটি শেষ পর্যন্ত ড্র-ই করে ফেলেন।

এই ম্যাচ শেষ হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের গায়ক ও রাজনীতিবিদ বাবুল সুপ্রিয় একটি টুইট করেন।

ছবির উৎস, Twitter/BabulSupriyo

ছবির ক্যাপশান,

পশ্চিমবঙ্গের গায়ক ও রাজনীতিবিদ বাবুল সুপ্রিয়'র টুইট

"১০৯ বলে ৭! কম করে বললেও বলতে হয়, এতো ভয়াবহ। হনুমা বিহারি শুধু ভারতের জয় না, ক্রিকেট খেলাটাকেই মেরে ফেললো।"

বাবুল সুপ্রিয়'র এই টুইট নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে সামাজিক মাধ্যমে।

যদিও তিনি শেষে বিশেষ দ্রষ্টব্যে দিয়েছিলেন, "আমি জানি আমি ক্রিকেট নিয়ে কিছুই জানি না।"

খেলার দুই দিন পর হনুমা ভিহারি টুইটের রিপ্লাই দেন, ছোট করে নিজের নামের বানানের ভুলটা ধরিয়ে দেন তিনি - এটা 'বিহারি' না 'ভিহারি' হবে।

হানুমা ভিহারির রিপ্লাইটি আশ্বিন-সেহওয়াগরা রিটুইট করে খানিকটা হাস্যরস করেন।

ক্রিকেট বিশ্লেষকদের অনেকের মতে, ভারতের ইতিহাসের অন্যতম সেরা ড্র এটি।

হানুমা ভিহারি হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট নিয়ে ব্যাট করেন পুরোটা সময়।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ভারতীয় উপমহাদেশের দলগুলো সাধারণত ভোগে - এবং কদাচিৎ জয় পায়। এই ড্র দিয়ে সিরিজ এখনও বাঁচিয়ে রেখেছে ভারত।

ছবির উৎস, Twitter/HanumaVihari

ছবির ক্যাপশান,

খেলার দুই দিন পর হনুমা ভিহারি টুইটের রিপ্লাই দেন, ছোট করে নিজের নামের বানানের ভুলটা ধরিয়ে দেন তিনি। যে এটা 'বিহারি' না 'ভিহারি' হবে

টেস্টে ৪০০ রানের বেশি টার্গেট অতিক্রম করে জয় ক্রিকেট বিশ্ব এখন পর্যন্ত দেখেছে মাত্র চারবার।

* ২০০৩ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪১৮ রান তাড়া করে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।

* ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা ৪১৪ রান তাড়া করে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।

* ১৯৭৬ সালে ভারত ৪০৬ রান তাড়া করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

* ১৯৪৮ সালে অস্ট্রেলিয়া ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৪০৪ রান তাড়া করে জয় পায়।

ছবির ক্যাপশান,

ভিরাট ও আনুশকার কন্যার জন্ম হলো মাত্র দিন কয়েক আগে

খেলাধুলায় যা যা আলোচনায় ছিল:

ভিরাট ও আনুশকার কন্যার জন্ম

"আমরা আনন্দের সাথে জানাচ্ছি, আজ বিকেলে আমাদের কন্যাসন্তানের জন্ম হয়েছে। সবাইকে ভালোবাসা, প্রার্থনা ও শুভেচ্ছার জন্য ধন্যবাদ," ভিরাট কোহলি নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়ে দেন এই সুখবর।

গত ১১ই জানুয়ারি ভিরাট ও আনুশকার কন্যাসন্তানের জন্মের খবর পাওয়া যায়।

এই বার্তায় ভিরাট কোহলি তাঁর এবং স্ত্রী আনুশকা শর্মার গোপনীয়তার প্রতি সম্মান দেখাতেও সবার প্রতি অনুরোধ জানান।

বাংলাদেশে এলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল

করোনাভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার পর প্রথমবারের মতো কোন বিদেশী ক্রিকেট দল ঢাকায় পা রাখলো ১০ই জানুয়ারি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট দলটি এসেই তিন দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকে। এরপর আজ বৃহস্পতিবার থেকে আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি নেয়া শুরু করে নিজেদের মধ্যে।

ছবির উৎস, Twitter/WindiesCricket

ছবির ক্যাপশান,

করোনাভাইরাস আবির্ভাবের পর প্রথমবারের মতো কোন ক্রিকেট দল ঢাকায় পা রাখলো ১০ই জানুয়ারি

অন্যদিকে, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলও শুরু করেছে প্রস্তুতি। আজ নিজেদের মধ্যে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে।

আর এ নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তদের মধ্যে আছে আলোচনা - কেমন করবে বাংলাদেশ!

খর্ব শক্তির একটি টিম ঢাকায় এনেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাই অনেকেই মনে করেন যে এবারে হয়তো বেশ সহজেই সিরিজ জিতবে বাংলাদেশ।

তবে কী হয় তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছু দিন।