বাংলাদেশে ও এবং এ লেভেল পরীক্ষা বন্ধে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার

ব্রিটিশ কাউন্সিল

ছবির উৎস, BRITISH COUNCIL

ছবির ক্যাপশান,

বাংলাদেশে ক্যামব্রিজ পদ্ধতির পরীক্ষা গ্রহণ করে ব্রিটিশ কাউন্সিল

বাংলাদেশে এপ্রিল মাস থেকে অনুষ্ঠিতব্য ক্যামব্রিজ পদ্ধতির 'ও' এবং 'এ' লেভেল পরীক্ষা বন্ধের জন্য নির্দেশ দিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আজ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এতে বলা হয়েছে, বর্তমানে কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে যুক্তরাজ্য এবং বাংলাদেশের প্রতিবেশী অন্যান্য দেশে ক্যামব্রিজ পদ্ধতির পরীক্ষা গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আনোয়ারুল হক স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, "সার্বিক বিবেচনায় এ সময়ে আমাদের দেশেও এ পরীক্ষা গ্রহণ করা যুক্তিসঙ্গত হবে না মর্মে প্রতীয়মান হওয়ায় ২০২১ সালের এপ্রিল হতে অনুষ্ঠেয় ক্যামব্রিজ পদ্ধতির 'ও' এবং 'এ' লেভেলের পরীক্ষাসমূহ গ্রহণ না করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।"

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে বাংলাদেশে ক্যামব্রিজ পদ্ধতির পরীক্ষা গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান ব্রিটিশ কাউন্সিলের কান্ট্রি ডিরেক্টর বরাবর।

বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন ২০২০ সালের ৮ই মার্চ।

সে প্রেক্ষাপটে সংক্রমণ ঠেকাতে ১৭ই মার্চ থেকে দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করে সরকার।

সেই ছুটি দফায় দফায় বাড়িয়ে ২৯শে মার্চ পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা রয়েছে।

বাংলাদেশে ইংরেজি মাধ্যম শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্রিটিশ কারিকুলাম অর্থাৎ ক্যামব্রিজ পদ্ধতিতেই পড়াশোনা এমন শিক্ষার্থীর সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

'ও' এবং 'এ' লেভেল পরীক্ষায় এ বছর কত শিক্ষার্থী অংশ নেবেন সে সংখ্যা জানা যায়নি।

তবে সেপ্টেম্বরে ব্রিটিশ কাউন্সিল এক বিবৃতিতে বলেছিল, ২০২০ সালের অক্টোবর নভেম্বর সেশনে পরীক্ষা দেয়ার জন্য ৫২০০ পরীক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন।

এর আগে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে গত বছরের মে-জুন সেশনের পরীক্ষাও বাতিল করা হয়েছিল।

বিবিসি বাংলায় আরো খবর: