পঞ্চম সংশোধনী অবৈধ

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট
Image caption আপীলের আবেদন খারিজ করা হলেও সুপ্রিম কোর্ট সংশোধনী ও পর্যবেক্ষণ দেওয়ার কথা বলেছে
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

বাংলাদেশে সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীকে অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিলো তার বিরুদ্ধে আপীলের অনুমতি করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগ৻ তবে এই রায়ে কিছু সংশোধনী এবং পর্যবেক্ষণ দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে৻

হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপীলের অনুমতি চেয়ে ওই আবেদন করেছিলেন প্রধান বিরোধী দল বিএনপির মহাসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেন ও তিনজন আইনজীবী৻

সরকারের প্রধান কৌশুলি এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম রায়ের পর বলেছেন, আপীল বিভাগের এই রায়ের মাধ্যমে দেশের শাসনতান্ত্রিক ইতিহাসে একটি বিরাট বিজয় অর্জিত হয়েছে৻ এর ফলে ভবিষ্যতে সামরিক শাসন আসার পথ বন্ধ হয়ে গেলো৻

তবে বিপক্ষের আইনজীবীরা বলছেন যে, আপীলের অনুমতির আবেদন খারিজ করা হলেও কিছু সংশোধনী ও পর্যবেক্ষণ দেওয়ার কথা উল্লেখ করায় আবেদনের পক্ষের কিছুটা যথার্থতা এসেছে বলে তাঁরা মনে করেন৻

আপীল আবেদনকারীদের আইনজীবী মওদুদ আহমেদ বলেন, এর ফলে পঞ্চম সংশোধনীকে বাতিল ঘোষণা করে হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিলো সেটা সম্পূর্ণভাবে পূনর্বহাল হলো না৻

সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীর মাধ্যমে বৈধতা দেওয়া হয়েছিলো ১৯৭৫ সাল থেকে ১৯৭৯ সাল পর্যন্ত সময়ের সামরিক শাসনকে৻ আর এই সংশোধনীকে অবৈধ বলে হাইকোর্ট রায় দিয়েছিলো ২০০৫ সালের আগস্ট মাসে৻

ঢাকায় একটি সিনেমা হলের মালিকানা নিয়ে ১৯৭৭ সালে সরকারের একটি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এক রীট মামলাকে কেন্দ্র করে সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীর বিষয়টি আদালতে আসে৻

হাইকোর্টের রায়ের সময় ক্ষমতায় ছিলো বিএনপি নেতৃত্বাধীন চার দলীয় জোট৻ তখন হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপীলের অনুমতি চেয়ে আবেদন করা হয়েছিলো৻ কিন্তু আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর রাষ্ট্রপক্ষের ওই আপীলের অনুমতির আবেদন প্রত্যাহার করে নেয়৻