কৃষকদের কার্ড দিচ্ছে সরকার

বাংলাদেশে কৃষিখাতে ভর্তুকির টাকা সরাসরি কৃষকের কাছে পৌঁছে দিতে কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড বিতরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে ৻

কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড বিতরণ কর্মসূচীর আনুষ্ঠানিক সূচনা হয়েছে নেত্রকোনার তেলিগাতী ইউনিয়ন থেকে।

সেখানে কৃষকদের এক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন যে কৃষকরা যাতে কৃষি উপকরণসহ সবধরনের সরকারী সহায়তা সহজভাবে পেতে পারেন, সেজন্যেই কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড চালু করা হয়েছে।

Image caption শেখ হাসিনা কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড বিতরন করছেন

এই কর্মসূচীর আওতায় সারা দেশে এক কোটি ৮২ লক্ষ কৃষক কৃষি কার্ড পাবেন।

তবে এবারে প্রথম পর্যায়ে বোরো মওসুমে সেচের জন্যে ডিজেল কেনায় ভর্তুকি বাবদ নগদ অর্থ দেয়া হবে প্রায় এক কোটি কৃষককে।

কর্মসূচীর উদ্বোধনী দিনে যারা কৃষি কার্ড পেয়েছেন, তাদের একজন আটপাড়া উপজেলার বড়তুষি গ্রামের কৃষক কেশব রঞ্জন সরকার। কীভাবে এই কার্ড পেলেন, তা জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন যে একটি জরীপের মাধ্যমে তার নাম তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।

মি. সরকার আরও বলেন যে, “যতদুর জেনেছি, এই কার্ডের মাধ্যমে কৃষি কাজে সার্বিক সহায়তা পাবো। যেখানে সমস্যা হবে এই কার্ড নিয়ে গেলে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা আমাদের বুঝিয়ে দেবেন যাতে আমরা কোন অবস্থাতেই ক্ষতিগ্রস্ত না হই।“

সারাদেশে কৃষি কার্ড পাওয়ার যোগ্য কৃষকদের চিহ্নিত করার কাজটি করেছে সরকারের কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর। এই অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ সাঈদ আলী বলছেন যে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড কর্মসূচী বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

Image caption প্রান্তিক, ক্ষুদ্র ও মাঝারি কৃষকরা এই কার্ড পাবেন

তিনি বলেন যে প্রান্তিক, ক্ষুদ্র ও মাঝারি এই তিন ধরনের কৃষক সরকারী সহায়তা পাবেন। যাদের ৫ শতক থেকে ৪৯ শতক জমি আছে তারা প্রান্তিক চাষী, যাদের ৫০ শতক থেকে আড়াই একর জমি আছে তারা ক্ষুদ্র চাষী এবং যাদের আড়াই একর থেকে সাড়ে সাত একর জমি আছে তারা মাঝারী চাষী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন।

কৃষি কার্ডের আওতায় প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র কৃষকরা ডিজেলের জন্যে ভর্তুকি পাবেন আটশ’ টাকা, আর মাঝারী কৃষকরা পাবেন ১০০০ টাকা করে। মি. আলী বলছেন যে কৃষকদের মাঝে সহায়তা বিতরন করার ক্ষেত্রে ব্যাংকের একটা বড় ভুমিকা থাকবে।

তিনি বলেন কৃষকরা দশ টাকা দিয়ে ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলবেন এবং কৃষকদের মাঝে যে সহায়তা বিতরন করা হবে তার টাকা সরকার ঐ অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেবে যাতে স্বচ্ছতা নিয়ে কোন প্রশ্ন না ওঠে।

কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন যে আগামী এক মাসের মধ্যেই কৃষি উপকরণ সহায়তা কার্ড সারাদেশে তালিকাভুক্ত সব কৃষকের কাছে পৌছে দেয়া হবে।#

বিবিসি বাংলার ওয়ালিউর রহমান মিরাজ ঢাকা থেকে এ‌ই প্রতিবেদনটি পাঠিয়েছেন৻

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না