আফগানিস্তানে তালেবানের শীর্ষ নেতা ধৃত

তালেবান নেতারা অনেকে পাকিস্তানে বলে সন্দেহ রয়েছে
Image caption তালেবান নেতারা অনেকে পাকিস্তানে বলে সন্দেহ রয়েছে

আফগানিস্তানে তালেবানের দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা বলে পরিচিত, মোল্লা আবদুল গনি বারাদার, করাচীতে পাকিস্তানী এবং মার্কিন বাহিনীর এক যৌথ অভিযানে ধরা পরেছে বলে জানা যাচ্ছে৻

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় ওয়াশিংটন ডেট লাইনে প্রথম প্রকাশিত এই রিপোর্টটি, পাকিস্তানের কর্মকর্তারা বিবিসিকে নিশ্চিত করেছেন৻ তবে ইসলামাবাদে সরকার এই আটক নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি৻

আফগানিস্তানে তালেবানের সামরিক কর্মকান্ডের তত্ত্বাবধায়ন, অর্থনৈতিক নিয়ন্ত্রণ মোল্লা আব্দুল গনি বারাদারই করতো বলে বলা হয়৻ তবে তালেবানের একজন মুখপাত্র এই আটকের কথা অস্বীকার করেছে৻

পাকিস্তানে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলেছেন পাকিস্তানীদের সরবরাহ করা তথ্যের ভিত্তিতে মোল্লা বারাদরকে আটক করা হয়৻

ইসলামাবাদে বিবিসির সংবাদদদতা অর্লা গেরিন বলছেন এ থেকে মনে হয় যেসব আফগান তালেবান নেতা পাকিস্তানে আছেন তাদের বিষয়ে পাকিস্তানের অবস্থান কঠোর হচ্ছে৻ যুক্তরাষ্ট্র অনেক দিন ধরেই চাচ্ছিল পাকিস্তান তা করুক৻

তালেবানের এক মুখপাত্র মোল্ল বারাদরের গ্রেফতারের কথা অস্বীকার করে বলেছেন তিনি এখনও আফগনিস্তানেই রয়েছেন এবং সেখানেে গোষ্ঠিটির সামরিক ও রাজনৈতিক তত্‌পরতা পরিচালনা করছেন৻ তিনি বলেছেন হেলমন্দ প্রদেশে মারজায় অভিয্ন চালিয়ে ব্যার্থ হয়ে তারা এসব গুজব ছড়াচ্ছে৻

Image caption শীর্ষ তালেবান নেতা করাচীতে ধৃত

তালেবান আন্দোলনে মোল্লা বারাদর একজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিত্ব৻ পাকিস্তানের সাংবাদিক রহিমুল্লাহ ইউসুফজাই, যিনি আন্দোলনটির ওপর অনেক বছর ধরে নজর রাখছেন, বলছেন মোল্লা বারাদর তালেবানের দুই উপনেতার একজন৻

তিনি সামরিক কৌশল এবং রাজনৈতিক বিষয়গলো দেখাশোনা করতেন৻

বিবিসির উত্তর আমেরিকা বিষয়ক সম্পাদক মার্ক মার্ডেল বলছেন মোল্লা বারাদর তালেবানের সামরিক এবং অর্থিক বিষয়গুলোসহ দৈনিক তত্‌পরতা পরিচালনা করে থাকেন এমন কি সামরিক কমান্ডারদেরও নিয়োগ দেন৻

অর্লা গেরিন বলছেন মনে করা হয় মোল্লা বারাদর আফগান সরকার এবং মার্কিন নেতৃত্বে বাহিনীর সাথে আলোচনার পক্ষে৻ পাকিস্তানে অনেকে মনে করেন তাকে গ্রেফতার করায় আলোচনার সব সম্ভাবনা দূর হয়ে গেল৻

আর অন্য অনেকে মনে করেন গ্রেফতারের মাধ্যমে আলোচনার একটা পথ খোলার চেষ্টা করা হচ্ছে৻ অর্লা গেরিন বলছেন এই পদক্ষেপের পেছনে অনেক বিষয় রয়েছে, এটা শুধু একজন নেতৃস্থানীয় কমান্ডারকে আটক করার ঘটনা না৻

মার্কিন সরকারের সূত্রগুলোর উদ্ধৃতি দিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা এই গ্রেফতারের খবর প্রথম প্রকাশ করে৻ পত্রিকাটি বলছে মোল্লা বারাদরকে পকিস্তানী কর্তৃপক্ষ জিজ্ঞাসাবাদ করছে, যাদের সাথে রয়েছে সি.আইয়ের কর্মকর্তারা৻

বিস্তারিত শুনুন আতিকুস সামাদের প্রতিবেদনে৻

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না