মাতৃভাষা রক্ষায় আন্তর্জাতিক কেন্দ্র

international mother language institute

বাংলাদেশে ভাষা আন্দোলনের স্মৃতি বিজড়িত একুশে ফেব্রুয়ারীর দিন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউটের৻

বিশ্বের বিভিন্ন ভাষার তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ এবং গবেষণার কাজ করবে এই প্রতিষ্ঠান৻

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোববার ঢাকায় এই প্রতিষ্ঠানের ভবন উদ্বোধন করে বলেন, বিশ্বের সব ভাষার তথ্য সংরক্ষণের পাশাপাশি এগুলোর বিস্তারেও এটি কাজ করবে৻

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউটে থাকবে একটি বিশ্ব মানের গ্রন্থাগার৻ থাকবে ভাষা জাদুঘর এবং আর্কাইভ৻ শেখ হাসিনা আশ্বাস দিয়েছেন যে এই প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য সরকারের তরফ থেকে প্রয়োজনীয় জনবলের ব্যবস্থা করা হবে৻

নির্মান কাজে বিলম্ব

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউটের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছিল ২০০১ সালে৻

তৎকালীন জাতিসংঘ মহাসচিব কফি আনানের উপস্থিতিতে শেখ হাসিনা এই প্রতিষ্ঠানের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন৻

কিন্তু পরবর্তীকালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট সরকার এই ইনষ্টিটিউটের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় বলে শেখ হাসিনা অভিযোগ করেন৻

তিনি বলেন, এর ফলে প্রতিষ্ঠানটির ভবন নির্মাণে যেমন বিলম্ব ঘটেছে তেমনি সরকারী অর্থেরও অপচয় হয়েছে৻

বিপন্ন মাতৃভাষা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউটকে শুধু বাংলা নয়, কাজ করতে হবে বিশ্বের সব জাতির বিপন্ন মাতৃভাষা সংরক্ষণে, বলছেন ঢাকার ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টসের উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম৻

তিনি বলেন, ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো যখন ২১শে ফেব্রুয়ারীকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘোষণা করে, তার পেছনে এমন একটা ধারণা কাজ করেছিল যে বিশ্বের অনেক জাতির মাতৃভাষাই বিপন্ন৻ বাঙ্গালী মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দিয়েছে—শুধু সে কারণে এটা করা হয় নি৻

রফিকুল ইসলাম বলেন, সব ভাষাভাষীরাই যেন তাদের মাতৃভাষা সম্পর্কে শ্রদ্ধাশীল হয়, যত্নবান হয়, ভাষার সংরক্ষণ ও বিকাশ সচেতন হয়—সেটাই ছিল লক্ষ্য৻

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউটকে একটি আন্তর্জাতিক মানের কেন্দ্র হতে হলে সে লক্ষ্যেই কাজ করতে হবে বলে অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মনে করেন৻

"বাংলাদেশে প্রায় পঞ্চাশটি উপজাতি রয়েছে, যারা কথা বলে তিরিশটির মতো ভাষায়৻ এসব ভাষা এখন বিপন্ন৻ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনষ্টিটিউট এসব ভাষা রক্ষায়ও কাজ করতে পারে৻"

তিনি বলেন, এই ইনষ্টিটিউটকে যদি একটা নির্ভেজাল সরকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়া হয় তাহলে উদ্দেশ্য অর্জিত হবে না৻ এটাকে যদি একটা স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে করা হয় এবং এখানে বিশেষজ্ঞ, ভাষাবিদ, এবং প্রযুক্তিবিদদের সম্মিলন ঘটানো যায়, তাহলেই এটিকে একটি আন্তর্জাতিক মানের কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে৻