চাল সরবরাহ বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার

বাংলাদেশে চালকল মালিকরা সরকারী গুদামে চাল সরবরাহ বন্ধ রাখার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, তা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

Image caption ডেমরায় ধান মাড়াই করছেন কৃষকরা - ফাইল ছবি

চুক্তি অনুযায়ী সরকারকে চাল সরবারহ না করলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক হুঁশিয়ারী দেয়ার পর চালকল মালিকরা তাদের অবস্থান পরিবর্তন করেছেন।

মালিকরা বলছেন যে দাবী পূরণে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে আশ্বাস পাওয়ার পর তাঁরা কর্মসূচী প্রত্যাহার করেছেন।

ধান-চাল সংগ্রহে সরকারী লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ার কারণে খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক সরবরাহকারীদের জন্যে প্রতি কিলোগ্রাম চালে অতিরিক্ত তিন টাকা উৎসাহ-মূল্য ঘোষণা করেছিলেন।

গত চৌঠা জুলাই নেয়া ঐ সিদ্ধান্তের ফলে প্রতি কেজি চালের সরকারী ক্রয় মূল্য দাঁড়ায় আটাশ টাকায়। কিন্তু এরপর চালকল মালিকরা এর আগে সরবরাহ করা চালের জন্যেও এই উৎসাহ-মূল্য দাবী করেন এবং এই দাবী পূরণ না হওয়ার কারণে সরকারী গুদামে চাল দেয়া বন্ধ করে দেন।

তবে চালকল মালিক সমিতির আহ্বায়ক লায়েক আলী এখন বলছেন যে তাদের কর্মসূচী প্রত্যাহার করা হয়েছে৻

চলতি বছরে সরকার আভ্যন্তরীণ বাজার থেকে বারো লক্ষ টন ধান-চাল কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

এর মধ্যে পাঁচ লক্ষ টন চাল কেনার জন্যে চালকল মালিকদের সঙ্গে চুক্তি করে খাদ্য বিভাগ। কিন্তু দুই লক্ষ আশি হাজার টন চাল সরবরাহ করার পর মালিকরা জানায় যে বাজারে চালের দাম বেশী থাকার কারণে তারা চাল কিনতে পারছেন না।

এরপরই সরকার উৎসাহ-মূল্য দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে মালিকরা দাবী করে যে চুক্তির আওতায় সরবারহ করা পুরো চালের দাম বাড়িয়ে দেয়া হোক। চালকল মালিক সমিতির নেতা লায়েক আলী এখনও আশা করছেন যে সরকার তাদের এই দাবী পূরণ করবে৻

চুক্তি অনুযায়ী সরকারকে চাল সরবরাহ না করলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকের এই হুঁশিয়ারী দেয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই চালকল মালিকরা তাদের কর্মসূচী প্রত্যাহার করার কথা ঘোষণা করেন।

মালিকদের দাবী প্রত্যাখান করে মিঃ রাজ্জাক বলেছিলেন যে চুক্তি অনুযায়ী চাল সরবারহ না করলে চালকলের লাইসেন্স বাতিল করা হতে পারে৻

চালকল মালিক সমিতির নেতা লায়েক আলী বলেছেন যে সোমবার থেকে সরকারী গুদামে চাল সরবরাহ শুরু করা হবে। আর দাবী পূরণে যে আশ্বাস পাওয়া গেছে, তা বাস্তবায়িত না হলে আলোচনা করে পরবর্তী কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।