চালকের ভুলেই হয়তো রেল দুর্ঘটনা

Image caption দুর্ঘটনাস্থলে ব্যাপক উদ্ধার তৎপরতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ট্রেন দুর্ঘটনার পেছনে চালকের ভুলকেই সম্ভাব্য কারণ বলে মনে করছে পুলিশ৻

পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার সাঁইথিয়া স্টেশনে ঐ দুর্ঘটনায় ৬৩ জন নিহত হন৻ দুর্ঘটনায় আহতের সংখ্যা প্রায় ১৪০ জন৻

সোমবার ভোররাতে সাঁইথিয়া ষ্টেশনে একটি যাত্রীবোঝাই ট্রেন দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় তাকে পেছন থেকে আরেকটি এক্সপ্রেস ট্রেন এসে ধাক্কা মারে৻

এসময় উভয় ট্রেনের সংর্ঘষে অনেকগুলো বগি দুমড়ে মুচড়ে যায়৻

পুলিশ বলছে, চালক এবং তার সহকারীর মৃতদেহের ময়না তদন্ত শেষে তারা হয়তো বলতে পারবেন কেন ট্রেনটি লাল সিগন্যাল উপেক্ষা করে পূর্ণ গতিতে স্টেশনে ঢুকে পড়েছিল৻

পুলিশ বলছে, ট্রেনটি যেহেতু মাত্র কয়েক মিনিট আগে এর পূর্ববর্তী স্টেশন ছেড়ে এসেছিল, তাই তারা মনে করেন যে চালকের ঘুমিয়ে পড়ার সম্ভাবনা কম৻

এদিকে এই দুর্ঘটনার পর প্রশ্ন উঠেছে যে ভারতের রেল চলাচলের পরিকাঠামো দুর্বল হয়ে পড়েছে কিনা৻

Image caption সাঁইথিয়ায় ষ্টেশনে দাঁড়ানো ট্রেনে পিছন থেকে ধাক্কা দেয় আরেকটি ‌এক্সপ্রেস ট্রেন

উল্লেখ্য ভারতের রেল নেটওয়ার্ক হচ্ছে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম নেটওয়ার্ক৻ অনেকে বলছেন, ভারতে প্রচুর সংখ্যক নতুন ট্রেন চালানো হলেও পরিকাঠামো উন্নয়ন, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ এসব গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রের দিকে যথেষ্ট নজর দেয়া হচ্ছে না৻

রেল কর্মীরা বলছেন মেরামতি আর রক্ষনাবেক্ষনের কাজে যুক্ত প্রায় ৯০ হাজার পদ খালি পড়ে রয়েছে৻

রেলওয়ে সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান বাসুদেব আচারিয়া বলেন, যথাযথ পরিকল্পনা ছাড়াই রেল সার্ভিস সম্প্রসারণ করা হচ্ছে, যার ফলে যাত্রী নিরাপত্তার বিষয়টি এখন গুরুত্ব পাচ্ছে না৻

রেল কর্তৃপক্ষ এই অভিযোগের একটাও স্বীকার করছে না৻

পূর্বাঞ্চলীয় রেলের মুখপাত্র সমীর গোস্বামী বলেন, পরিকাঠামোই যদি না থাকতো তাহলে তাদের পক্ষে প্রতিদিন ১৬৫০টি ট্রেন চালানো সম্ভব হতো না৻

মিস্টার গোস্বামী বলেন, যাত্রী নিরাপত্তাই তাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং এক্ষেত্রে কোনও আপোষের প্রশ্নই নেই৻

উল্লেখ্য মাত্র দুমাস আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আরও একটি বড় ধরণের ট্রেন দুর্ঘটনায় অনেক লোক নিহত হন৻

সেই দুর্ঘটনার জন্য অবশ্য রাজ্য কর্তৃপক্ষ মাওবাদীদের দায়ী করেন৻

কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের বলেন, মাত্র দুমাসের ব্যবধানে পশ্চিমবঙ্গে দুটো বড়ধরণের ট্রেন দুর্ঘটনার বিষয় তদন্ত করে দেখা হবে৻

রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অসীম দাশগুপ্তও বারবার রেল দুর্ঘটনায় তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করে এসব বিষয়ে করা তদন্ত রিপোর্ট জনসমক্ষে প্রকাশ করার দাবী জানান৻