পাবনায় পুলিশের সর্বাত্মক অভিযান শুরু

শামসুল হক টুকু
Image caption পাবনায় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলীয় জেলা পাবনায় মঙ্গলবার দুষ্কৃতকারীদের হামলায় পুলিশের তিন জন সদস্য নিহত হওয়ার পর পুলিশ ও ৠাব সেখানে সর্বাত্মক অভিযান শুরু করেছে।

স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানিয়েছেন, সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে অভিযান পরিচালনার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার কারণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্ব পালনের উৎসাহ নষ্ট হচ্ছে বলে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মন্তব্য করেন।

স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হকসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বুধবার পাবনায় গিয়ে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলেন।

মঙ্গলবার তিনজন পুলিশ নিহত হবার পর স্থানীয় পুলিশের তরফ থেকে চরমপন্থী সংগঠনকে সন্দেহ করা হচ্ছে।

কিন্তু স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলছেন, সন্দেহের তালিকা আরও দীর্ঘ। অপরাধীদের ধরতে পাবনাসহ তার আশপাশের জেলাগুলোতে সর্বাত্নক অভিযান পরিচালনার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পাবনা থেকে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বিবিসিকে বলেন, সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে অভিযান পরিচালনার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, “দেশকে যারা অস্থিতিশীল করতে চায় তারা যে কোন সন্ত্রাসীকে ব্যবহার করতে পারে। সে বিষয়টিও আমরা খতিয়ে দেখছি।”

স্থানীয় অধিবাসীদের উদ্ধৃত করে স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী বলেন, তাদের অনেকেই মনে করেন পুলিশ ও ৠাবের কার্যক্রম কিছুটা স্তিমিত হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হওয়ায় অনেক ক্ষেত্রে পুলিশ বা ৠাব সদস্যদের উৎসাহে ভাটা পড়েছে।

অনেক সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নিজেদের রক্ষা করতে গিয়েও সমালোচনার মুখে পড়ছে বলে স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী মন্তব্য করেন।

এদিকে পাবনা থেকে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, অপরাধীদের ধরার জন্য পাবনাসহ আশপাশের কয়েকটি জেলার পুলিশকে বার্তা দেয়া হয়েছে।

বিভিন্ন জায়গায় অভিযানের সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বেশ ক’জনকে আটক করা হয়েছে।