বিদ্রোহ মোকাবিলায় গাদ্দাফির ডাক

gaddafi ছবির কপিরাইট APTN
Image caption টিভিতে ভাষণ দিচ্ছেন গাদ্দাফি

লিবিয়ায় কর্ণেল গাদ্দাফি এক টিভি ভাষণে বলেছেন, তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভরত বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে তিনি লড়াই করে যাবেন৻

একটি ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের সামনে দাঁড়িয়ে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, লিবিয়ার ঐক্য অনেক বেশি মূল্যবান, এবং তিনি তার সমর্থকদের প্রতি রাস্তায় নেমে বিদ্রোহীদের আক্রমণ করার ডাক দেন৻ তিনি বলেন, বিক্ষোভকারীরা জনগণের প্রতিনিধি নয়, তারা একটি ক্ষুদ্র গোষ্ঠী মাত্র, তার ভাষায় ‘মাদক সেবন করা তেলাপোকা‘৻ তিনি সতর্ক করে দেন, দরকার হলে শক্তি প্রয়োগ করা হবে, তবে তা করা হবে আন্তজাতিক আইন অনুযায়ী৻

মি. গাদ্দাফি একটি সবুজ বই তুলে ধরে বলেন, যারা লিবিয়ার ক্ষতি করতে চায় বা শত্রুদের সহায়তা করতে চায় তাদের শাস্তি মৃত্যু৻ তিনি এসময় চীনের তিয়ানআনমেন স্কোয়ারের ঘটনাবলীর কথা মনে করিয়ে দেন৻

তিনি বলেন, জনগণের উচিত ওই সব ক্ষুদ্র সন্ত্রাসবাদী গ্রুপগুলোকে ধরে নিরস্ত্র করা৻ তারা লিবিযাকে আরেকটি আফগানিস্তানে পরিণত করতে চায়, যা পরে আমেরিকানরা দখল করে নেবে৻

মুয়ম্মার গাদ্দাফি বলেন, তিনি প্রেসিডেন্ট নন, যেহেতু তার কোন পদ নেই, তাই তিনি পদত্যাগ করবেন না৻ তার হাতে রয়েছে রাইফেল তা দিয়ে তিনি লড়াই করবেন, শহীদের মৃত্যু বরণ করবেন৻

ছবির কপিরাইট libya
Image caption তবরুক শহরে অগ্নিদগ্ধ ভবন

গাদ্দাফি বলেন, একটি ক্ষুদ্র অসুস্থ গোষ্ঠী এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে, তারা তরুণদের হাতে মাদক দ্রব্য এবং অস্ত্র তুলে দিচ্ছে৻ তারা মনে করছে তারা তিউনিসিয়া ও মিশরের মতো কিছু ঘটাবে, কিন্তু লিবিয়া তিউনিসিয়া বা মিশর নয়৻

ত্রিপোলির পরিস্থিতি শান্ত তবে উত্তেজনাপূর্ণ৻ গত রাত জুড়ে গোলাগুলি চলেছে, মিলিশিয়া আর ভাড়াটে সৈন্যরা রাস্তায় টহল দিচ্ছিল৻ গ্রীন স্কোয়ার এলাকাটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৻ রাস্তায় লাশ পড়ে ছিল বলে জানা গেছে৻

এখানে কত লোকের মৃত্যু হয়েছে তা জানা যাচ্ছে না মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে এই সংখ্যা দু থেকে তিনশ হবে৻ খুব কম দোকানপাট খুলেছে৻ রাস্তাগুলো ফাঁকা৻ কোথাও কোথাও রুটি ও পেট্রোল কেনা কেনার জন্য লোকজনের লাইন দেখা যাচ্ছে৻

অন্যদিকে বেনগাজি শহরে রাস্তা এবং রেডিও স্টেশনগুলো জনতার দখলে৻

ছবির কপিরাইট BBC World Service
Image caption সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারী

বিভিন্ন দেশ বিমান ও জাহাজে করে তাদের নাগরিকদের লিবিয়া থেকে সরিয়ে নেবার ব্যবস্থা করছে৻ লিবিয়ার হাজার হাজার লোক সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিবেশী মিশরে চলে যাবার চেষ্টা করছে, এ জন্য মিশর সীমান্ত জুড়ে মোতায়েন করা সৈন্যের সংখ্যা বাড়াচ্ছে৻

এর আগে গাদ্দাফিকে কয়েকদিনের মধ্যে এই প্রথম টিভিতে দেখা যায়৻ তিনি রাস্তায় একটি গাড়িতে বসা, দরজা খোলা এবং একটা ছাতা ধরে আছেন, বলছেন যে তিনি দেখাতে চান তিনি লিবিয়াতেই আছেন, ভেনেজুয়েলাতে চলে যাননি৻ তিনি বলেন, ‘বিদেশী টিভিকে বিশ্বাস করবেন না, এরা কুকুর ছাড়া আর কিছু নয়৻‘

গাদ্দাফির পুত্র সাইফ আল ইসলাম গণহত্যার কথা অস্বীকার করলেও এটা স্বীকার করেছেন যে লিবিয়ান জেট বিমানগুলো সেনাবাহিনীর ঘাঁটির ওপর বোমা বর্ষণ করেছে৻

ছবির কপিরাইট BBC World Service
Image caption টিভিতে গাদ্দাফি

লিবিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ একটি বৈঠক করছে৻ জাতিসংঘে লিবিয়ার রাষ্ট্রদুত ইব্রাহিম দাবাশি এই বৈঠক ডেকেছেন৻

তিনি এবং অন্যান্য লিবিয়ান কুটনীতিকরা এর আগেই ঘোষণা করেছেন যে তারা গাদ্দাফির পক্ষ ত্যাগ করছেন এবং তাকে উতখাত করার আহ্বান জানিয়েছেন৻

জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন লিবিয়ায় বিমান দিয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর আক্রমণ চালানোর খবরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন৻ জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার নাবি পিল্লাই সতর্ক করে দিয়েছেন যে সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর এ ধরণের আক্রমণ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ বলে বিবেচিত হতে পারে৻

আরব লীগ ইতিমধ্যেই লিবিয়ার সহিংস ঘটনাবলীর কঠোর নিন্দা করেছে এবং আজ তাদের নেতারাও একটি বৈঠক করছেন৻