নারায়ণগঞ্জ সিটির প্রথম মেয়র আইভী

নারায়ণগঞ্জের ১৬৩টি ভোট কেন্দ্রের ভোট গণনা শেষে বেসরকারিভাবে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

Image caption সেলিনা হায়াত আইভী

আইভী তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শামীম ওসমানের চেয়ে ১ লাখ ১ হাজার ৩৪৩ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৬৩ টি কেন্দ্রের ভোট গণনা শেষে রোববার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে বেসরকারিভাবে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

নারায়ণগঞ্জের জিয়া হলে স্থাপিত নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণ কক্ষে রিটার্নিং অফিসার বিশ্বাস লুতফর রহমান সেলিনা হায়ত আইভীকে নারায়ণগঞ্জ সদ্য গঠিত সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র হিসেবে ঘোষণা করেন।

রোববার দিনব্যাপী ভোট গ্রহণ এ গণনার পর সেলিনা হায়াত আইভী পান ১ লাখ ৮০ হাজার ৪৮ভোট।

আর তার নিকট তম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী শামীম ওসমান পান ৭৮ হাজার ৭০৫ ভোট।

১ লাখ ১ হাজার ৩৪৩ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী বলেন এই জয় জনগণের জয়।

এদিকে নির্বাচনের অপর প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি সমর্থিত তৈমুর আলম খন্দকার পেয়েছেন ৭ হাজার ৬১৬ ভোট।

তবে সেনাবাহিনী মোতায়েন না করা, কালো টাকা ছড়ানো এবং ভোটারদের ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে নির্বাচনের সাত ঘণ্টা আগে নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন মিস্টার খন্দকার।

রোববার সকাল আটটায় শুরু হয়ে টানা বিকেল চারটা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলে।

রিটার্নিং অফিসার বিশ্বাস লুতফর রহমান জানান এই নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল চার লাখ চার হাজার ১৮৯ জন।

এদিকে এই নির্বাচনে ৫৮টি কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম ব্যবহার করা হয়।

নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন বা র‍্যাবের ১৪০০ সদস্য,ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাঁচ হাজার সদস্য মাঠে নামে।

বিভিন্ন স্থানে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা এবং বিশেষ চেকপোস্ট বসানো হয়।

এ বছরের ৫ মে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা, বন্দরের কদম রসুল ও সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভা নিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন গঠিত হয়।

এরপর গত ২২ সেপ্টেম্বর নবগঠিত এই সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়।