বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে চার্জশীট

ছবির কপিরাইট focus bangla

বাংলাদেশে প্রধান বিরোধীদল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগিরসহ ৪৫জনকে অভিযুক্ত করে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় চার্জশীট দিয়েছে পুলিশ।

চার্জশীটে বিএনপির নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির পাঁচজন সদস্যের নামও রয়েছে। এরা হচ্ছেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম কে আনোয়ার, হান্নান শাহ , মির্জা আব্বাস এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

আদালতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারির আবেদনও করা হয়েছে।

নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীকে খুঁজে বের করার দাবিতে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট ২৯ এবং ৩০শে এপ্রিল যে হরতাল করেছিল ।

সে সময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে রাস্তায় গাড়ি পোড়ানোর অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছিল দ্রুত বিচার আইনে। সেই আইন অনুযায়ী পুলিশ সাতদিনের মধ্যে চার্জশীট দিয়েছে বলে সরকারি আইনজীবীরা জানিয়েছেন।

সরকার পক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু বলেছেন, ‘গাড়ি পোড়ানোর সময় ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে আটক করা হয়েছিল, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ এবং তদন্তে পাওয়া তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশ এই চার্জশীট দিয়েছে। ঘটনায় কেউ মদদ দিয়েছে ,কেউ হুকুম দিয়েছে এবং কেউ সরাসরি ঘটনা ঘটিয়েছে, এ সব বিষয় বিবেচনা করেই অভিযোগ আনা হয়েছে ’বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মি: আলমগির বলেছেন, বিরোধীদের উপর দমন নির্যাতনে অংশ হিসেবে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সরকার এসব করছে। তিনি আইনগতভাবে এগোনোর পাশাপাশি আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষনা দিয়েছেন।

বিএনপি নেতাদের পক্ষের আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার বলেছেন, বিএনপি এবং এর জোটের প্রথম সারির নেতারা হাইকোর্ট থেকে সাতদিনের জামিনে রয়েছেন। তাই চার্জশীট হলেও বিএনপির অভিযুক্ত সিনিয়র নেতাদের গ্রেফতার করা যাবে না।

এদিকে, বিএনপি নেতাদের জামিনের ব্যাপারে হাইকোর্টের বিভক্ত রায়ের বিষয়টি নিস্পত্তি করতে প্রধান বিচারপতি তৃতীয় বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছেন। মোহাম্মদ আনোয়ার উল হকের নেতৃত্বে হাইকোর্টের একক বেঞ্চে রোববার শুনানী হওয়ার কথা রয়েছে।

মামলাটির এজাহারে ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতা আব্দুল জব্বারের নাম থাকলেও চার্জশীটে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। সরকারি আইনজীবীরা জানিয়েছেন, আব্দুল জব্বারের ঠিকানা সঠিক ভাবে পাওয়া না যাওয়ায় তাকে চার্জশীটে অর্ন্তভূক্ত করা হয়নি। চার্জশীটে অভিযুক্তদের মধ্যে বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভিসহ পাচজন গ্রেফতার রয়েছেন।