BBC navigation

ইসলাম অবমাননার অভিযোগে তিনজন ব্লগার গ্রেফতার

সর্বশেষ আপডেট মঙ্গলবার, 2 এপ্রিল, 2013 12:00 GMT 18:00 বাংলাদেশ সময়

ঢাকার বিভিন্ন এলাকা থেকে এই তিনজন ব্লগারকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ

ইন্টারনেটে ইসলাম ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর লেখালেখির অভিযোগে রাজধানীতে তিনজন ‘ব্লগারকে’ গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

পুলিশ বলছে, এই ব্লগাররা ইসলাম ধর্ম ও নবী মোহাম্মদকে অবমাননা করে উস্কানিমূলক মন্তব্য করে আসছিলো।

গ্রেফতারের পর তাদেরকে ঢাকার মহানগর মুখ্য আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদেরকে সাত দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দিয়েছে।

এই তিনজনকে এমন এক সময়ে গ্রেফতার করা হলো যখন ‘নাস্তিক ব্লগারদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা অভিমুখে আগামী শনিবার লং মার্চ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান জানিয়েছেন, ঢাকার বিভিন্ন জায়গা থেকে এদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার রাতে রাজধানীর ইন্দিরা রোড, পলাশী ও মনিপুড়ি পাড়া থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

"ব্লগারদেরকে অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করার প্রয়াস হতাশাজনক"

আরিফ জেবতিক, ব্লগার

তিনি জানান, অনেকদিন ধরেই তারা এই ব্লগারদের ওপর নজর রাখছিলেন। দীর্ঘ তদন্তের পরেই তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

ব্লগারদের ক্ষোভ

এই গ্রেফতারের ঘটনায় ইন্টারনেট ব্লগাররা তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

ফেসবুকে অনেকেই তাদের স্ট্যাটাসে এই গ্রেফতারের সমালোচনা করে ব্লগারদের অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানিয়েছেন।

ব্লগার আরিফ জেবতিক বলেন, 'বাংলাদেশে ব্লগাররা এই মুহূর্তে একটা অস্বস্তিকর অবস্থায় আছে। সাধারণ ব্লগাররা নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন। গণতান্ত্রিক একটি রাষ্ট্রে এ ধরনের আচরণ প্রত্যাশিত নয়।'

তিনি বলেন, 'ব্লগারদেরকে অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করার প্রয়াস হতাশাজনক।'

সংবাদ সম্মেলনে সরকারের চারজন মন্ত্রী: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর, আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ, আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ও স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু

তাদের মুক্তি দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কয়েকজন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী মানব বন্ধন করেছেন।

সরকারের বক্তব্য

গ্রেফতারের পর সরকারের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে তাদের অবস্থান তুলে ধরা হয়েছে।

"যারা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার চেষ্টা করছে তাদের বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে"

শফিক আহমেদ, আইনমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্র ও আইনমন্ত্রীর উপস্থিতিতে এই সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে, যারা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার চেষ্টা করছে তাদের বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ বিবিসিকে বলেছেন, '২০০৬ সালে যে তথ্য প্রযুক্তি আইন করা হয়েছিলো সেখানে পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করতে পারে এরকম কোনো কাজ অপরাধমূলক কাজ বলে গণ্য হবে। বিচারের আওতায় এনে তাকে অনধিক ১০ বছরের কারাদণ্ড ও এক কোটি টাকা অর্থ দণ্ডে দণ্ডিত করা যায়।'

তিনজন ব্লগার

গ্রেফতারকৃত ব্লগাররা হচ্ছেন মশিউর রহমান, রাসেল পারভেজ এবং সুব্রত অধিকারী শুভ।

পুলিশ বলছে, তারা ভিন্ন ভিন্ন ছদ্মনামে সামহোয়্যারইন ব্লগ, আমার ব্লগ, নাগরিক ব্লগ ইত্যাদি ব্লগে উস্কানিমূলক লেখালেখি করছিলেন।

গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তা মি. রহমান বলেন, সুব্রত অধিকারী শুভ লিখতেন 'সাদা মুখোশ' ও 'লাল কসাই' নামে। মসিউর রহমান 'শয়তান' ও 'নেমেসিস' ছদ্মনামে লিখতেন।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে কম্পিউটারের বিভিন্ন সরঞ্জামাদিও উদ্ধার করা হয়।

এর আগে, ফেসবুক ও ব্লগে ইসলাম ধর্ম ও নবী মোহাম্মদকে অবমাননা করে মন্তব্যকারীদের সনাক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকার একটি কমিটি গঠন করে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻