BBC navigation

সাভারে ধ্বংসস্তূপের নিচে প্রাণের স্পন্দন খুঁজে বেড়াচ্ছেন যারা

সর্বশেষ আপডেট শনিবার, 27 এপ্রিল, 2013 15:56 GMT 21:56 বাংলাদেশ সময়

ধসে যাওয়া বিশাল দালানটির ইট-কংক্রিট-রডের ফাঁক গলে ভেতরে গিয়ে যারা আটকে পড়া মানুষদের বের করে আনার চেষ্টা করছেন, মোবারক তাদের একজন।

শনিবার এই ধ্বংসস্তূপের নিচে একটা ছোট্ট খুপরিতে হঠাৎ করেই তিনজন জীবিত মহিলার সন্ধান পেলেন তিনি। তাদের একজন গত তিন দিনের দুর্বিসহ যন্ত্রণার ভার সইতে না পেরে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন।

“আমি কিছু বুঝে উঠার আগেই এই মহিলা এসে আমাকে আক্রমণ করলেন। আমাকে কামড়ে দেয়ার চেষ্টা করলেন”, বলছিলেন মোবারক।

সঙ্গে রাখা ইনজেকশন পুশ করে এই মহিলাকে অচেতন করে শেষ পর্যন্ত বাইরে বের করে আনেন মোবারক এবং তাঁর দলের অন্য উদ্ধারকর্মীরা। বাকী দুই মহিলাকেও উদ্ধার করে আনতে সক্ষম হন তিনি।

যে ১০/১২ জন উদ্ধারকর্মী দলের সঙ্গে মোবারক কাজ করছেন,তাদের সবাই ধসে পড়া রানা প্লাজার কাছাকাছিই থাকেন। বুধবার যখন নয়তলা এই ভবনটি ধসে পড়লো, আর সবার সঙ্গে দৌড়ে আসেন ঘটনাস্থলে। তারপর থেকেই এখানে আছেন। মাঝে শুধু একরাত বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন একটু বিশ্রাম নেয়ার জন্য।

“এ পর্যন্ত আমরা বহু মানুষকে জীবিত উদ্ধার করেছি। কেবল গতকাল (শুক্রবার) হতে আজ পর্যন্ত প্রায় ২০/২৫জনকে আমরা জীবিত বের করে এনেছি।”

এই উদ্ধারকাজ চালাতে গিয়ে গত তিন দিনে ধ্বংসস্তূপের নিচে যে ভয়ংকর অভিজ্ঞতার ভেতর দিয়ে গেছেন, সাংবাদিকদের কাছে তা বর্ণনা করছিলেন মোবারক।

উদ্ধারকর্মী হিসেবে কাজ করার কোন পেশাগত প্রশিক্ষণ তাঁর নেই। কিন্তু কাজ করতে গিয়ে গত তিন দিনেই শিখে নিয়েছেন অনেক কিছু।

ভবনের নিচে যারা চাপা পড়ে আছে তাদের অনেককেই অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ না কেটে বের করা অসম্ভব। অনেকের হাত বা পা ভারী কংক্রিটের নিচে চাপা পড়ে আছে।

চিকিৎসকরা তাদের বুঝিয়ে দিয়েছেন কিভাবে চেতনানাশক ইনজেকশন দিয়ে অবশ করে তারপর হাত বা পা কেটে বাদ দিতে হবে। এভাবে একজনকে তারা জীবিত অবস্থায় বের করে আনতে সক্ষম হন।

মোবারক এবং তার সঙ্গীরা ফাঁক-ফোঁকর গলে ধ্বংসস্তূপের নিচে যেসব জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছেন, পেশাদার উদ্ধারকর্মীরাও হয়তো সেখানে যাওয়ার আগে দুবার ভাববেন।

তিনি জানালেন, বহু মৃতদেহ এখনো বিধ্বস্ত ভবনটির বিভিন্ন তলায় ছড়িয়ে আছে। এসব লাশ পঁচে ভয়ানকভাবে বিকৃত হয়ে গেছে।

ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের একজন কর্মকর্তা মেজর শাকিল এই তরুণ স্বেচ্ছাসেবকদের কাজের প্রশংসা করে বলেন, যে কোন দুর্যোগে স্থানীয় জনগণই আসলে ‘ফার্ষ্ট রেসপন্ডার’। ফায়ার সার্ভিস এবং অন্যান্য উদ্ধারকর্মীরা আসেন পরে।

তিনি বলেন, এই উদ্ধারকর্মীদের কারণে তাদের কাজে কোন বিঘ্ন ঘটছে না, তারা বরং উদ্ধার কাজে ভালো সহায়তা করছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻