ইউক্রেনের যুদ্ধজাহাজ দখল করেছে রাশিয়া

bbc ছবির কপিরাইট AP
Image caption ইউক্রেনে রুশ পন্থী সেনাবাহিনী

ইউক্রেন বলছে রাশিয়ার সৈন্যরা ক্রাইমিয়াতে ইউক্রেনের সর্বশেষ যুদ্ধজাহাজটি দখল করে নিয়েছে।

এই ঘটনা এমন এক সময়ে ঘটলো যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবা রাশিয়াকে হুশিয়ারি দিয়ে বলেছে ইউক্রেনের ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ নিলে নতুন নিষেধাজ্ঞার মুখে পরতে হবে রাশিয়াকে।

ইউক্রেনের একটি টেলিভিশনে দেশটির প্রতিরক্ষা বাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন রুশ পন্থী সৈন্যরা ইউক্রেনের নৌবাহিনীর একটি জাহাজ দখল করে নিয়েছে।

চেরকাস্সি নামে জাহাজটি শুক্রবার সিভাসটোপোলে নোঙর করেছিল।

ক্রাইমিয়াতে ইউক্রেনের সর্বশেষ জাহাজ দখলের ঘটনাটি এমন এক সময়ে ঘটলো যখন পশ্চিমা বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলো রাশিয়ার ব্যাপারে আরও নতুন করে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার ব্যাপারে হুশিয়ারি দিয়েছে।

নেদারল্যান্ডস এর হ্যেগ এ অনুষ্ঠিত জি সেভেন সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবা রাশিয়াকে হুশিয়ারি দিয়ে বলেছে ইউক্রেনের ব্যাপারে আর কোন পদক্ষেপ নিলে নতুন নিষেধাজ্ঞার মুখে পরতে হবে রাশিয়াকে। এক সংবাদ সম্মেলনে মি. ওবামা বলছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলো সব রকমের পদক্ষেপ গ্রহণ করতে প্রস্তুত রয়েছে যেটা রাশিয়ার অর্থনীতিকে চরম ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে।

তিনি ইউক্রেনকে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে সাহায্য করার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আওভান জানিয়েছেন।

রাশিয়াকে বাদ দিয়ে জি-সেভেনের দেশগুলোর নেতারা এ বছর দেশটির অলিম্পিক ভেন্যু সোচিতে পরিকল্পিত জি-এইট বৈঠক না করে শুধুমাত্র নিজেদের একটি সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রাশিয়া অবস্থান পরিবর্তন না করা পর্যন্ত জি-এইট বৈঠকে যোগও দেবেন না তারা।

এর আগে ক্রাইমিয়ায় রাশিয়ার সেনারা সর্বশেষ ইউক্রেইন নৌঘাঁটি দখলের পর সেখান থেকে সশস্ত্র বাহিনী সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেয় কিয়েভ সরকার।