টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা

india-pak match ছবির কপিরাইট AFP
Image caption এখনো পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকপের সবগুলো ম্যাচেই জয়লাভ করেছে ভারত।

আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে ৬ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা নিজেদের ঘরে নিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

ভারতের করা ১৩০ রানের জবাবে লঙ্কানরা ১৭.৫ ওভারে ৪টি উইকেট খুইয়ে ১৩৪ রান তোলে।

এর আগে একই ভেন্যুতে মহিলাদের ফাইনালে জয়লাভ করেছে অস্ট্রেলিয়ার মহিলা ক্রিকেট দল।

টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নেয় শ্রীলঙ্কা।

২০ ওভার খেলে ভারত সংগ্রহ করে ৪ উইকেটে ১৩০ রান। ভারতের পক্ষে ভিরাট কোহলি সংগ্রহ করেন ৫৮ বলে ৭৭ রান।

তবে শ্রীলংকার আক্রমনাত্মক বোলিংয়ের মুখে শেষ ৪ ওভারে ভারতের সংগ্রহ ছিল মাত্র ১৯ রান।

১৩১ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৫.৫ ওভারে ৪১ রানেই নিজেদের দুই উইকেট হারায় লঙ্কানরা। তবে পঞ্চম উইকেটে সাঙ্গাকারা আর থিসারা পেরেরা ৩২ বলে ৫৬ রানের শক্ত জুটি গড়ে তোলেন। ৩৫ বলে ৫২ রান করেন সাঙ্গাকারা।

ম্যাচ সেরা হয়েছেন কুমার সাঙ্গাকারা আর টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন বিরাট কোহলি।

সন্ধ্যা ৭টায় মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে পুরুষদের ফাইনাল ম্যাচ। এর আগে একই ভেন্যুতে মহিলাদের ফাইনালে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের নারী ক্রিকেট দল।

মেয়েদের ফাইনালে ৬ উইকেটে জয় পেয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার নারী ক্রিকেট দল।

২০১১ সালে অনুষ্ঠিত ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ ক্রিকেট এবং গত বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা নিজেদের দখলে নিয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।

সর্বশেষ যে ওয়ানডে বিশ্বকাপ, তার ফাইনালেও খেলেছিল দল দুটি। সেখানে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে শিরোপা ঘরে নেয় ভারত।

ভারতকে হারিয়ে অনেকটা তারই পাল্টা জবাব দিল শ্রীলঙ্কা।

ইতোমধ্যেই ভারত ও শ্রীলংকা দুই দলের খেলোয়াড়ের শিরোপা জয়ের জন্য বাড়তি বোনাসের ঘোষণা দেয়া হয়েছে তাদের দেশের ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত বৃষ্টিবিঘ্নিত প্রথম সেমিফাইনালে ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৭ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয় লংকানদের। অন্যদিকে সুপার টেনের চার ম্যাচের সবকটিতে জয়ের মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসী ভারত সেমিফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে।

টি-টুয়েন্টিতে এ পর্যন্ত ছয়বার মুখোমুখি হলো ভারত ও শ্রীলঙ্কা। জয় পরাজয়ের হারও তাদের সমান।