সাঈদীর রায়ের প্রতিবাদে জামায়াতের হরতাল চলছে

ছবির কপিরাইট Focus Bangla
Image caption কাঁদানে গ্যাস আর গরম পানি ছুড়ে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের সরিয়ে দিয়েছে পুলিশ

জামায়াতে ইসলামী নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির পরিবর্তে আমৃত্যু কারাদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে সারাদেশে হরতাল কিছুক্ষন আগে শুরু হয়েছে।

ঢাকা, রাজশাহী ও চট্টগ্রামে রাস্তায় লোকজনের উপস্তিতি কম লক্ষ করা যাচ্ছে।

রাজশাহীতে কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনার খবর পাওয়া যাচ্ছে।

রাজশাহীর সাংবাদিক আনোয়ার আলী হিমু জানিয়েছেন হরতাল শুরুর পর শহরের কয়েকটি স্থানে জামায়াতে সমর্থকরা টায়ার পুরিয়ে বিক্ষোভ করে।

সেসময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে। তবে বড় কোন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। দুরপাল্লার কোন যান ছেড়ে যায়নি।

আর চট্টগ্রামের সংবাদিক রফিকুল বাহার সকালে শহরের প্রধান রাস্তাগুলো ঘুরে জানিয়েছেন গাড়ির সংখ্যা খুব কম। মানুষের মধ্যে চাপা আতঙ্ক রয়েছে।

তবে যেকোন রকম পরিস্থিতি মোকাবেলায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

শাহবাগে গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ

বুধবার সকালে রায় ঘোষণার পরপরই শাহবাগ মোড়ে বিক্ষোভ করতে শুরু করে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা। তারা ‘’আঁতাতের রায় মানি না’’ শ্লোগানে মিছিল করে।

বেলা ১১টার দিকে শতাধিক কর্মী শাহবাগ গোলচত্বরে অবস্থান শুরু করলে পুলিশ সরিয়ে দিতে শুরু করে। এ সময় কয়েকটি বাস ও সিএনজি ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে।

পরে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস আর গরম পানি ছুড়ে তাদের শাহবাগ মোড় থেকে সরিয়ে দেয়।

ছবির কপিরাইট focus bangla
Image caption দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আমৃত্যু মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত

পুলিশের হামলায় গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

গণজাগরণ মঞ্চের অপর অংশের নেতাকর্মীরাও এ সময় শাহবাগ মোড়ের আরেকদিকে অবস্থান নেয়। তারাও মিছিল নিয়ে রাস্তা অবরোধ করার চেষ্টা করলে পুলিশ সরিয়ে দেয়।

গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনের ফলেই আইন সংশোধন করে ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আপিল করার সুযোগ সৃষ্টি করা হয়।

প্রথম আপিলে জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বদলে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয় যা গত বছর ডিসেম্বরে কার্যকর করা হয়েছে।

মি. সাঈদীর ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে ঝিনাইদহে। চট্টগ্রামের গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরাও সেখানে বিক্ষোভ করেছেন।

রায়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

ছবির কপিরাইট Facus Bangla
Image caption মি. সাঈদীর ফাঁসির দাবিকে চট্টগ্রামে সমাবেশ

দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আমৃত্যু কারাদণ্ডের আদেশের পর সিলেট এবং রাজশাহীতে বিক্ষোভের ঘটনা ঘটেছে গতকাল।

রাজশাহীতে বিক্ষোভ মিছিল থেকে পুলিশের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাস আর শটগানের ফাঁকা গুলি ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে।

সংঘর্ষের সময় পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে বলে সংবাদদাতারা জানিয়েছেন। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ আর বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

সিলেটেও মি. সাঈদীর সমর্থকদের মিছিল থেকে পুলিশের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ আর গাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় পুলিশের সাথে তাদের ধাওয়া পাল্টার ঘটনা ঘটে। পুলিশ এখানেও কাঁদানে গ্যাস আর ফাঁকা গুলি ছুড়েছে।

এছাড়া খুলনা ও চাপাইনবাবগঞ্জেও জামায়াত সমর্থকরা বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। গতকাল চাপাইনবাবগঞ্জে পুলিশের সাথে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ঘটে।

রায়কে কেন্দ্র করে সারাদেশে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় নিরাপত্তা বাড়িয়েছে আইনশৃঙ্খলা সংস্থা।