স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতাকামী নেতা পদত্যাগ করছেন

ছবির কপিরাইট PA
Image caption স্কটিশ ন্যাশানাল পার্টির নেতা অ্যালেক্স স্যামন্ড পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

স্কটল্যান্ডের ঐতিহাসিক গণভোটের ফলাফল স্বাধীনতার বিপক্ষে যাওয়ার পর স্কটিশ ন্যাশানাল পার্টির নেতা অ্যালেক্স স্যামন্ড পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

স্কটল্যান্ড রাজ্য সরকারের প্রধান বা ফার্স্ট মিনিস্টার অ্যালেক্স স্যামন্ডের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতা। স্বাধীনতাপন্থী প্রচারণার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি।

গণভোটে ভোটাররা তার স্বপ্নকে জয়যুক্ত করতে না পারায় তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।

শুক্রবার সকালে গণভোটের ফলাফল প্রকাশ করা হয়, যাতে দেখা যায় ৫৫ শতাংশ ভোটার যুক্তরাজ্যের সাথে থাকার পক্ষে ভোট দিয়েছে।

স্বাধীনতার পক্ষে 'হ্যাঁ' ভোট ছিল ৪৫ শতাংশ।

স্কটল্যান্ডের সমস্ত নাগরিকদের এই ফল মেনে নেয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন স্বাধীনতার পক্ষের নেতা মি: স্যামন্ড।

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption গণভোটের ফলাফল ঘোষণার পর একজন হতাশ 'হ্যাঁ' সমর্থক।
ছবির কপিরাইট BBC World Service
Image caption কোন পক্ষ কত ভোট পেল

ফলাফল ঘোষণার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সব সমস্যা সমাধানে একসাথে থাকার পক্ষেই এই ফলাফল এসেছে।

স্কটল্যান্ডে স্বাধীনতার প্রশ্নে গণভোটে বেশিরভাগ স্কটিশই ‘না’ ভোট দিয়েছেন, অর্থাৎ যুক্তরাজ্যের সাথে থাকার পক্ষেই ভোট পড়েছে বেশি।

বৃহস্পতিবারের গণভোটে ৫৫ শতাংশ জনগণ 'না’ ভোট অর্থাৎ স্বাধীনতার বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন এবং ৪৫ শতাংশ জনগণ স্বাধীনতার পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

ছবির কপিরাইট Getty
Image caption গণভোটে 'না' শিবিরের নেতৃত্ব দেন লেবার পার্টি নেতা এ্যালাস্টেয়ার ডার্লিং

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এই ঐতিহাসিক গণভোটে প্রায় আশি শতাংশ স্কটিশ ভোট দিয়েছেন।

দেশটির ৩২টি কাউন্সিলের মধ্যে ৩১টির ফলাফলে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে থাকার পক্ষে ভোট পড়েছে ১৯ লাখ ১৪ হাজার ১৮৭ টি এবং অপর দিকে স্বাধীনতার পক্ষে ‘হ্যাঁ’ ভোট দিয়েছেন ১৫ লাখ ৩৯ হাজার ৯২০ জন।

তিনশো বছরেরও বেশি সময় ধরে যুক্তরাজ্যের অংশ স্কটল্যান্ড।

এই খবর নিয়ে আরো তথ্য