আইএস জঙ্গিদের ভয়ে দলে দলে পালাচ্ছে কুর্দিরা

turkey syria ছবির কপিরাইট REUTERS
Image caption আই এসের ভয়ে সিরিয়া থেকে তুরস্কে পালাচ্ছে কুর্দিরা

সিরিয়ায় কট্টর সুন্নি আইএস জঙ্গীদের ভয়ে দলে দলে ঘরাবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে কুর্দিরা।

গত তিনদিনে এক লাখ তিরিশ হাজারেরও বেশি কুর্দি নারী-পুরুষ শিশু সীমান্ত অতিক্রম করে তুরস্কে ঢুকেছে।

জাতিসংঘ বলছে, সিরিয়ায় তিন বছর আগে গৃহযুদ্ধ শুরুর পর এত অল্প সময়ে এত বেশি সংখ্যায় শরণার্থী দেশ ছেড়ে পালায়নি।

আইএস যোদ্ধারা সীমান্ত শহর কেবানির ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটারের মধ্যে চলে এলে শুক্রবার তুরস্ক সীমান্তের ৩০ কিমি পথ খুলে দেয়।

তবে হঠাৎ নতুন করে করে সিরিয়া থেকে বিপুল সংখ্যায় শরণার্থীদের চাপে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তুরস্কের সরকার।

তুরস্কের উপ-প্রধানমন্ত্রী ন্যুমান কুরতুলমাস বলছেন, তারা আশঙ্কা করছেন আগামী কদিনে সিরিয়া থেকে লাখ লাখ শরণার্থী ঢুকবে।

ইতিমধ্যেই তুরস্কে দশ লাখের বেশি সিরিয় শরণার্থী রয়েছে।

নতুন এই কুর্দি শরণার্থীদের কিছু আত্মীয়স্বজন এর আগেই তুরস্কে চলে এসেছিলেন। তারা এখন সীমান্তে এসে জড়ো হচ্ছেন।

রোববার স্বজনদের জন্য অপেক্ষমাণ কুর্দিদের সাথে তুরস্কের নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষও হয়েছে।

এরই পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে তুরস্ক এখন সিরিয়ার সীমান্ত বরাবর প্রবেশ পথগুলো তার বন্ধ করে দিচ্ছে।

দক্ষিণ তুরস্ক থেকে বিবিসির সংবাদদাতা মার্ক লোয়েন বলছেন, সমস্যা হচ্ছে কুর্দিরা তুর্কীদের প্রতি এমনিতেই খুব শত্রুভাবাপন্ন।

গত ৩০ বছর ধরে তুর্কী বাহিনী কুর্দি বিদ্রোহীদের সাথে লড়াই করেছে। এখন আবার তাদেরই জায়গা করে দিতে হচ্ছে।