বিএনপির কর্মসূচি ঘিরে ঢাকায় রাজনৈতিক উত্তেজনা

ছবির কপিরাইট focus bangla
Image caption প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রলীগ শনিবার ঢাকায় মিছিল করে।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় ৫ই জানুয়ারি বিরোধী দল বিএনপির পূর্বঘোষিত এক কর্মসূচিকে ঘিরে রাজনৈতিক উত্তেজনা বাড়ছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ এখনো পর্যন্ত এই সমাবেশের কোন অনুমতি দেয়নি। বিএনপির একটি প্রতিনিধিদল শনিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের দফতরে গিয়ে কর্মকর্তাদের দেখা পাননি। জনসভার অনুমতি চেয়ে তারা যে আবেদন করেছিলেন, সেটির কোন জবাব এখনো মেলেনি।

গত বছরের ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদ শুরু হয়। বিএনপি এই দিনটিকে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালনের ঘোষণা দেয়। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ এবং তাদের মিত্রদলগুলো এই দিনটিতে ঢাকার বিভিন্ন অংশে অনেকগুলো জনসভা করার পরিকল্পনা করছে।

দুই পক্ষের এই পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিকে ঘিরে যে রাজনৈতিক উত্তাপ তৈরি হয়েছে তাতে অনেকে সেদিন হানাহানির আশংকা করছেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, সরকার যদি অনুমতি নাও দেয়, তারপরও তারা ৫ই জানুয়ারি ঢাকায় তাদের কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করবেন।

তিনি বলেন, বিএনপি নিয়মতান্ত্রিকভাবেই তাদের কর্মসূচি পালন করতে চায়।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগের একজন নেতা মাহবুবুল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি রাস্তায় নামলে সংঘাত হতে পারে।

আওয়ামী লীগ ইতোমধ্যে ৫ই জানুয়ারী ঢাকার বিভিন্ন অংশে দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে মাঠ দখলে রাখার কৌশল নিয়েছে।

দলের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার ঢাকায় কর্মী-সমর্থকদের বিরাট সমাবেশ ঘটানো হয়।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর