'গাধার পরিশ্রমের' জন্যে গাধাকে পুরস্কার

অক্লান্ত পরিশ্রম করেও স্বীকৃতি বা পুরষ্কার না পেলে আমরা সেটাকে বলি ‘গাধার খাটুনি।’

কিন্তু ভারতে এবার দুটো গাধাকেই তাদের কঠোর পরিশ্রমের জন্যে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

দক্ষিণের শহর ব্যাঙ্গালোরের একজন রাজনীতিক তাদেরকে তাদের পরিশ্রম ও আনুগত্যের জন্যে এই উপহার দিয়েছেন।

ওই রাজনীতিকের নাম ভাতাল নাগারাজ, যিনি আঞ্চলিক একটি রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

ভারতে এনটিভির ওয়েবসাইটে এই খবর দেওয়া হয়েছে।

“গাধা, কুকুর, মহিষ, গরু এবং ষাঁড়ের মতো গৃহপালিত সব পশুকে আমি পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কারণ তারা তাদের প্রভুদের প্রতি মানুষের চাইতেও বেশি অনুগত।” বলেন তিনি।

মি. নাগারাজ বলেন, মানুষ যতো কাজ করে তার চাইতেও বেশি পরিশ্রম করে এসব গৃহপালিত পশু।

পুরস্কার হিসেবে মি. নাগারাজ, একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ওই দুটো গাধার শরীরের ওপর গোলাপের পাপড়ি ছিটিয়ে দেন।

গাধার শরীরে রঙিন কাপড় ও রঙিন দানার মালা পরানো ছিলো।

শহরের আন্ত-নগর বাস স্টেশনে জাকজমকভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় যেখানে বহু দর্শকও উপস্থিত ছিলেন।

মি. নাগারাজ বলেন, ভারতীয় সমাজে অক্লান্ত পরিশ্রমের কাজে গাধাকে ব্যবহারের অনেক চল আছে, তবে সেই কাজের স্বীকৃতি দেওয়া হয় না।

তিনি বলেন, বিশ্বের অভিনব এই প্রতিযোগিতার জন্যে কাউকে আবেদন করতে বলা হয়নি। কোনো আবেদন গ্রহণও করা হয়নি। কোনো বিচারকও ছিলো না।

ব্যাঙ্গালোরে এধরনের আরো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে বলে জানিয়েছেন ওই রাজনীতিক।

সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম হতে পারে এই বিবেচনা থেকে এই রাজনীতিক এর আগেও অভিনব কিছু ঘটনার জন্ম দিয়েছিলেন।

এর আগে জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে তিনি একটি মহিষের পিঠে চেপে শহর ঘুরে বেড়িয়েছিলেন।