নিরাপত্তার অজুহাতে বাংলাদেশে ভাইবার বন্ধ

ছবির কপিরাইট no credit
Image caption বাংলাদেশে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের কাছে ভাইবার বেশ জনপ্রিয়

বাংলাদেশে ইন্টারনেট টেলিফোন সার্ভিস ভাইবার এবং ট্যাংগো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ টেলিকম রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) থেকে এই মর্মে একটি নির্দেশ জারি করা হয় মোবাইল ফোন অপারেটরদের ওপর।

এতে রোববার মধ্যরাত থেকে রোববার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ভাইবার এবং ট্যাংগো বন্ধ রাখতে বলা হয়।

গ্রামীণফোন তাদের ওয়েবসাইটে দেয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, টেলিফোন রেগুলেটরি কমিশনের তরফ থেকে রাত সাড়ে বারোটায় তাদের কাছে একটি নির্দেশনা আসে। এতে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে অবিলম্বে ভাইবার এবং ট্যাংগো বন্ধ রাখতে বলা হয়।

গ্রামীন ফোন সকাল পৌণে নয়টা থেকে তাদের গ্রাহকদের এই সেবা বন্ধ করে দেয়। তারা জানিয়েছে, আজ সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত গ্রাহকরা ভাইবার এবং ট্যাংগো ব্যবহার করতে পারবেন না। এজন্যে গ্রামীণ ফোনের তরফ থেকে গ্রাহকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভাইবার এবং ট্যাংগো অ্যাপস ব্যবহার করে মোবাইল ফোন থেকে বিনামূল্যে দেশে-বিদেশ কল করা যায়। বাংলাদেশে বিরোধী দলগুলোর অনেক নেতা-কর্মী সরকারের নিরাপত্তা নজরদারি এড়াতে ভাইবার বা এ ধরণের সার্ভিস ব্যবহার করেন।

বিরোধী দল বিএনপির একজন নেতা বিবিসিকে জানিয়েছেন, ভাইবার বন্ধ করে দেয়ার পর তারা নিজদলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। কারণ তারা নিজেদের মধ্যে যোগাযোগের জন্য এই সার্ভিস ব্যবহার করতে পারছেন না।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ টেলিকম রেগুলেটরি কমিশনের কোন বক্তব্য এখনো পাওয়া যায়নি।