বর অসুস্থ তাই অতিথিকে বিয়ে করলেন তরুণী

Image caption হিন্দু রীতিতে বিয়েতে কন্যা দানের একটি দৃশ্য। - ফাইল ফটো।

ভারতের উত্তর প্রদেশের মোরাদাবাদের পঁচিশ বছরের তরুণ যুগল কিশোরের সাথে রামপুরের তেইশ বছরের তরুণী ইন্দিরার বিয়ের প্রস্তুতি চলছিলো ভালোভাবেই।

এমনকি মালাবদল পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল।

কিন্তু যখনই মালাবদলের জন্য হাত বাড়ালেন পাত্র তখনই তিনি সবার সামনেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান ফ্লোরে।

আর তখনি পাত্রী জানতে পারেন যে তার হবু স্বামীর মৃগী রোগ রয়েছে।

ভারতের টাইমস অফ ইণ্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে হবু বর কিশোরের অসুস্থতাজনিত সমস্যাটি তার পরিবারই তার কাছে গোপন করায় চরম ক্ষুব্ধ হন তরুণী পাত্রী।

সঙ্গে সঙ্গে তিনি তার সিদ্ধান্ত বদল করেন এবং ওই অনুষ্ঠানেই তিনি অত্যন্ত খুশী মনে হরপাল সিং নামে একজনকে বিয়ে করবেন বলে ঘোষণা দেন।

মিস্টার সিং নিজেও ওই অনুষ্ঠানে অতিথিদের মধ্যে ছিলেন এবং সম্পর্কে তার ভগ্নীপতির ভাই।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption হিন্দু সম্প্রদায়ের বিয়ের একটি দৃশ্য।

মূহুর্তের ঘোষণায় অপ্রস্তুত হলেও মিস্টার সিং হাসিমুখেই ইন্দিরাকে বউ করে নিবেন বলে জানান।

পরে ওই অনুষ্ঠানেই ইন্দিরা ও হরপাল সিংয়ের মধ্য মালাবদল হয়।

এরপর পণ্ডিত মন্ত্র পড়ান ও বর-কনে সাত পাক দেন।

এরমধ্যে ডাক্তারের কাছে নেয়ার পর জ্ঞান ফিরে এলে কিশোর আবার ওই অনুষ্ঠানে আসেন।

কিন্তু ততক্ষণে তার প্রস্তাবিত বধূ অন্যের হয়ে গেছে।

কিশোর এবং তার আত্মীয় স্বজনেরা অবশ্য ইন্দিরাকে অনেক অনুরোধ করেছিলো ইন্দিরাকে।

তাতেও কাজ না হওয়ায় সংঘর্ষও বেধে যায় আর তাতে ব্যবহৃত হয় চামচ, প্লেট, ডিশ।

কিন্তু সব প্রচেষ্টাই ব্যর্থ হয়ে যায় ইন্দিরার দৃঢ়তার কাছে।

পরে কিশোর আর তার পরিবার মোরাদাবাদে ফিরে যায়।

চিঠিপত্র: সম্পাদকের উত্তর